২১ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

কনসেনট্রেশন ক্যাম্পে আটকের শঙ্কায় ফুটবলারদের বিদ্রোহ!

প্রকাশিত : ৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:২৫ পি. এম.
কনসেনট্রেশন ক্যাম্পে আটকের শঙ্কায় ফুটবলারদের বিদ্রোহ!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে ড্র করার পরে নাপোলির ফুটবলারদের জন্য ক্যাম্প করার কথা ঘোষণা করেছিলেন নাপোলির চেয়ারম্যান উরেলিও ডে লাউরেন্টিস। সেখানে এক সপ্তাহ থাকার জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি।

সেই নির্দেশ অমান্য করেছে পুরো দল। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ ড্র হওয়ার পরে ফুটবলাররা যে বাড়িতে চলে গেছেন। কারণ, ক্যাম্পের নামে চেয়ারম্যান আটকে রাখতে চেয়েছিলেন ফুটবলারদের।

কেউ কেউ বলছেন, কনসেনট্রেশন ক্যাম্পের মতো ছিল ব্যাপারটি। ফলে ফুটবলাররাও পাল্টা বিদ্রোহ করতে যাচ্ছেন।

লিগে নাপোলির অবস্থা মোটেও ভালো নয়। লিগ টেবিলে সাত নম্বরে তারা। শেষ পাঁচ ম্যাচে মাত্র একটিতে জিতেছে। তারপর রেড বুল সলজবুর্গের সঙ্গে মঙ্গলবার রাতে ১-১এ ড্র করে নাপোলি। তাতে বেজায় চটেছেন ক্লাবের শীর্ষকর্তা লাউরেন্টিস।

কোচ কার্লোস আনচেলত্তিকে বরখাস্ত করার জন্য লাউরেন্টিস উঠে পড়ে লেগেছেন। আইনজীবীদের সঙ্গে কথাও বলছেন তিনি। ফুটবলারদের শোকজ করার কথাই ভাবা হচ্ছে। কারণ, চেয়ারম্যানের নির্দেশ তারা মানেননি।

ইতালি ফুটবলে জোর আলোচনা, ক্লাবের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করা, ক্লাবের নির্দেশ না মানা, পরপর ম্যাচ হেরে ক্লাবের আর্থিক ক্ষতি করার মতো অভিযোগ ফুটবলারদের বিরুদ্ধে তোলা হচ্ছে।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচের পর উয়েফার নিয়ম মেনে সংবাদ সম্মেলনে যাননি কোচ। ফলে উয়েফার শাস্তির কোপে পড়তে যাচ্ছে নাপোলি।

কিন্তু ফুটবলারদের কেন আটকে রাখার পরিকল্পনা করা হয়েছিল? জবাবে ক্লাবটির চেয়ারম্যান বলেছেন, এটাকে আটকে রাখা বলা উচিত নয়। ফুটবলাররা নিজেদের মধ্যে সময় কাটাক। একে-অপরকে চিনুক। কারণ, মাঠে খেলা দেখে মনে হচ্ছে না, ফুটবলাররা কেউ কাউকে চেনে-জানে।

ক্যাম্পে না গিয়ে লাউরেন্টিসের কোপে পড়েছে পুরো দল। ফুটবলারদের পাশে থাকার জন্য কোচের চাকরি যাওয়া শুধু সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

প্রকাশিত : ৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:২৫ পি. এম.

০৮/১১/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলা



শীর্ষ সংবাদ: