২০ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

ড. কামাল-রবরা ব্যর্থ, ঐক্যফ্রন্ট বিলুপ্ত করা উচিত ॥ ইরান

প্রকাশিত : ২৩ অক্টোবর ২০১৯
  • ২০ দলীয় জোট ত্যাগের হুমকি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ এবার ড. কামাল হোসেন ও তার নেতৃত্বাধীন রাজনৈতিক জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে নিয়ে বিষোদগার করলেন জোটসঙ্গী লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান। তিনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা ও খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ব্যর্থতার কারণে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিলুপ্তিও দাবি করেছেন। এর আগে জোটের মতামত না নিয়ে বিএনপির এমপিরা সংসদে যোগ দেয়ার পর তিনি ওই দলটির বিরুদ্ধেও বিষোদগারের পাশাপাশি ২০ দলীয় জোট ত্যাগের হুমকি দিয়ে ছিলেন। পরে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের হস্তক্ষেপে তিনি তার বিদ্রোহী অবস্থান থেকে সরে আসেন।

মঙ্গলবার দুপুরে লেবার পার্টির নয়াপল্টন কার্যালয়ে দলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ২০ দলীয় জোটের শরিক দল লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান মন্তব্য করেন, ড. কামালকে নিয়ে বিএনপি অযথা সময় নষ্ট করছে। তিনি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা ও খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য রাজপথে আন্দোলনসহ সবকিছুতে ড. কামাল-রবরা ব্যর্থ। তাই তাদের এই ব্যর্থতার দায়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট বিলুপ্ত করা উচিত।

ইরান বলেন, ইতোমধ্যে প্রমাণিত হয়েছে, সরকারের আজ্ঞাবহ আদালত দিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তি সম্ভব নয়। এ পরিস্থিতিতে আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমেই খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে ঐক্যবদ্ধভাবে ২০ দলীয় জোটকে উদ্যোগ নিতে হবে। ড. কামাল হোসেনরা যে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আন্দোলন করবে না দেশের মানুষ বুঝে গেছে।

ইরান বলেন, ভাবতে অবাক লাগে যে, দেশের একটি জনপ্রিয় দল ও জোটের প্রধান, সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী, সাবেক সেনাপ্রধান সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের স্ত্রী খালেদা জিয়া আজ দুইবছর ধরে কারাবন্দী। তার মুক্তি নিয়ে এখন পর্যন্ত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট কোন জোরালো বক্তব্য বা কার্যকর কর্মসূচী দেয়নি বরং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন, যা হাস্যকর বটে। কারণ, খালেদা জিয়া বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ ও ধর্মীয় মূল্যোবোধে বিশ্বাসী শক্তির ঐক্যের প্রতীক। খালেদা জিয়ার মুক্তি মানেই গণতন্ত্র ও জনগণের মুক্তি, তাই ছাত্র-যুবসমাজকে খালেদা জিয়ার মুক্তির সংগ্রামের জন্য জেগে উঠতে হবে। ড. কামাল হোসেনদের অপেক্ষায় বসে থাকলে হবে না। ইরান বলেন, গত বছর ডিসেম্বর মাসে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা ও ভোট কারচুপি মোকাবেলায় ভূমিকা রাখতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছে। তাই নির্বাচনে সীমাহীন ব্যর্থতা, অপরিপক্কতা ও সরকারের নীলনক্সা বাস্তবায়নের দায়ে ঐক্যফ্রন্টকে বিলুপ্ত করা উচিত।

ইরান বলেন, ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে সব কর্মকা- দেশবাসী ও জাতীয়তাবাদী শক্তির কাছে প্রশ্নবিদ্ধ। সরকারের নীলনক্সা অনুযায়ী ড. কামাল হোসেনরা আন্দোলনমুখী বিএনপিকে নির্বাচনমুখী করেছে। পরবর্তীতে ড. কামাল নির্বাচনী কার্যক্রম থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছে। ২০ দলীয় জোটকে অকার্যকর রেখে আওয়ামী লীগকে টানা তৃতীয় দফায় ক্ষমতাসীন করতেই ড. কামালরা বন্ধু বেশে জাতীয়তাবাদী শক্তির ওপর সওয়ার হয়েছে। বিএনপির ৯০ ভাগ নেতাকর্মী জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কারণে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পরাজয় ও খালেদা জিয়ার মুক্তি দীর্ঘায়িত হচ্ছে বলে মনে করে।

প্রকাশিত : ২৩ অক্টোবর ২০১৯

২৩/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: