১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

চাঁদপুরে মেঘনায় পুলিশ-জেলে সংঘর্ষে আহত ৬

প্রকাশিত : ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ০১:৩৯ পি. এম.
চাঁদপুরে মেঘনায় পুলিশ-জেলে সংঘর্ষে আহত ৬

নিজস্ব সংবাদদাতা, চাঁদপুর ॥ মা ইলিশ নিরাপদে প্রজননের লক্ষ্যে চাঁদপুর অভয়াশ্রম এলাকায় নৌ-পুলিশের অভিযানে জেলেদের সাথে সংঘর্ষে ২ জেলে, ২ পুলিশ সদস্য ও স্পীডবোট চালকসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষের সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১৮ জেলেকে আটক করেন। পৃথক আরো দুই অভিযানে আটক হয়েছে ১০ জেলে।

সোমবার ভোরে সদর উপজেলার রাজরাজেশ^র ইউনিয়নের মেঘনা নদীর পাড়ে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। চাঁদপুরে দায়িত্বরত নৌপুলিশের এসপি জমশের আলীর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়।

চাঁদপুর নৌ-থানা পুলিশ জানায়, ভোর ৪টার দিকে নৌ-পুলিশ অভিযান চালায়। ৬টার দিকে মা ইলিশ নিধনকালে জেলেদের আটক করতে গেলে তারা পুলিশের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে এবং দলবদ্ধ হয়ে জেলেরা পুলিশের উপর বাঁশ দিয়ে আক্রমন চালায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। আহত জেলেরা হলেন-নাজমুল হোসেন শেখ (২০), মনির হোসেন শেখ (৩৫) ও স্পীডবোট চালক মো. রুবেল (২০), এসআই জাকির হোসেন, নায়েক দেলোয়ার হোসেন ও কনস্টেবল শাহরিয়ার। অভিযানের সময় পুলিশ ২১ কেজি মা ইলিশ ও ৫০ হাজার মিটার কারেন্টজাল জব্দ করেছেন।

আটক জেলেরা হচ্ছেন- কামাল (৩২), সবুজ (২৪), শামছু (২৮), মিলন বেপারী (৪০), আমির হোসেন (২৫), কাউছার বেপারী (২৫), বিজয় বেপারী (২০), রুহুল আমিন (২০), হাবিব খান (৩২), ইব্রাহীম (১৮), চারু গাজী (৪০), ছাত্তার খান (২১), আইনুল হক (৬০), আল-আমিন বেপারী (১৮), জসিম বেপারী (২০), নাজমুল হোসেন শেখ (২০), মনির হোসেন শেখ (৩৫) ও অজ্ঞাতনামা একজন শিশু।

চাঁদপুর নৌ-থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু তাহের খান জানান, আটক জেলেদের বিরুদ্ধে চাঁদপুর মডেল থানায় নিয়মিত মামলা হয়েছে। আজই তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হবে। আটকদের মধ্যে ১জন শিশু থাকায় ছেড়ে দেয়া হয়। ৩ পুলিশ সদস্য প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। আটক দুই জেলে ও স্পীডবোট চালক চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অপরদিকে আজ সকালে কোস্টগার্ড চাঁদপুর স্টেশনের পেটি অফিসার মাইনুল হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে মেঘনা নদী থেকে ৮ জেলেকে আটক করা হয়। আটকরা হচ্ছেন- নেয়ামত মিজি (১৯), শহীদ গাজী (২৫), মো. আরিফ গাজী (১৮), ফয়েজ পাটওয়ারী (২০), মো. রাজিব (২২), মো. শাকিল (১৯), মো. আকতার হোসেন (১৮), মো. শাহরুখ হোসেন (২০)। এ সময় জেলেদের কাছ থেকে ৫০ কোজি মা ইলিশ ও ৩ হাজার মিটার কারেন্টজাল জব্দ করে কোস্টগার্ড।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওলিদুজ্জামান ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ৮ জেলের প্রত্যেককে ১ বছর করে কারাদন্ড প্রদান করেন।

অপরদিকে হাইমচর উপজেলা টাস্কফোর্স রবিবার দিনগত রাতে অভিযান চালিয়ে দুই মা ইলিশ শিকার করায় দুই জেলেকে আটক করেন। আটকরা হচ্ছেন-মনির হোসেন গাজী (৩৫) ও আমির হোসেন গাজী (২৭)। হাইমচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফেরদৌসি বেগম ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে প্রত্যেককে ১ বছর করে কারাদন্ড প্রদান করেছেন।

চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুল বাকি জানান, চাঁদপুরের ৯০ কিলোমিটার নৌ-সীমানায় জেলা ও উপজেলা টাস্কফোর্সের দিন ও রাতে নিয়মিত অভিযান অব্যাহত রয়েছে। কারাদন্ডপ্রাপ্ত জেলেদেরকে পুলিশ কারাগারে প্রেরণ করেছেন।

প্রকাশিত : ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ০১:৩৯ পি. এম.

১৪/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: