১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

আজ নেপালকে হারালেই ফাইনালে বাংলাদেশ

প্রকাশিত : ১১ অক্টোবর ২০১৯

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রথম ধাপ পেরুনো গেছে ভালভাবেই। এরপর দ্বিতীয় ধাপ পেরুনোর পালা। এটিও যদি ভালমতো পার হওয়া যায় তাহলে চতুর্থ ও চূড়ান্ত ধাপে উপনীত হওয়াটা একদমই নিশ্চিত হয়ে যাবে বাংলাদেশের কিশোরী ফুটবলারদের। সাফ অনুর্ধ-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ খেলতে নামবে গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যারা। ভুটানের থিম্পুর চাংলিমিথান স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বেলা ৩টায় লাল-সবুজবাহিনীর প্রতিপক্ষ হচ্ছে হিমালয়ের দেশ নেপাল। একই ভেন্যুতে সন্ধ্যা ৬টায় অপর ম্যাচে ভারত মোকাবেলা করবে স্বাগতিক ভুটানকে।

এই আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভুটানকে ২-০ গোলে হারিয়ে শুভ সূচনা করেছে বাংলাদেশ। আর নেপাল শুরু করেছিল বড় হারে, ভারতের কাছে ১-৪ গোলে। কাজেই বঙ্গকন্যা এবং হিমালয়কন্যাদের আজ এটা দ্বিতীয় ম্যাচ। নেপালের সঙ্গে এ নিয়ে তৃতীয়বার খেলবে বাংলাদেশ। ২০১৮ আসরে গ্রুপপর্বে নেপালকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। এর আগে ২০১৭ সালে প্রথম আসরেও জিতেছিল বাংলাদেশ। এবার অনেক বড় ব্যবধানে ৬-০ গোলে। তার মানে দুই ম্যাচের প্রতিটিতেই জিতেছে বাংলাদেশ, ৯ গোলের বিপরীতে হজম করেনি কোন গোল। তাই বলা যায়, অতীত পরিস্যংখ্যান অনুযায়ী নেপাল বাংলাদেশের জন্য সহজ প্রতিপক্ষই।

আজকের ম্যাচে নেপালকে হারালেই এক ম্যাচ হাতে রেখেই ফাইনালে নাম লেখানো নিশ্চিত করে ফেলবে বাংলাদেশ দল। তবে ড্র করলে বা হেরে গেলে ফাইনালে ওঠা ঝুলে থাকবে।

বাংলাদেশের সমান তিন পয়েন্ট নিয়েও গোল গড়ে এগিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। গত আসরের রানার্সআপ বাংলাদেশ আছে দ্বিতীয় স্থানে। প্রথম ম্যাচে জয় না পাওয়াতে পয়েন্টশূন্য ভুটান আছে তৃতীয় স্থানে। নেপালেরও কোন পয়েন্ট নেই, তবে তারা যেহেতু গোল বেশি হজম করেছে তাই সর্বনি¤œ স্থানে তারা।

বাংলাদেশ দলের গত দুই আসরের বেশিরভাগ ফুটবলারই বয়সের কারণে বাদ পড়ে গেছে। সুযোগ পেয়েছেন নতুন ১৪ জন। এই মেয়েদের নিয়েই প্রথম ম্যাচে ভাল ফুটবল উপহার দিয়েছেন বাংলাদেশের কোচ ছোটন। প্রথম ম্যাচে প্রবল ঠা-া আবহাওয়াতেও সাবলীল ফুটবল খেরেছে রূপনারা। আজও সে রকম খেলবে তারা এমনটাই প্রত্যাশা বাংলাদেশী ফুটবলপ্রেমীদের।

এবারের আসরে বাংলাদেশ গ্রুপের শেষ ম্যাচটি খেলবে আগামী ১৩ অক্টোবর ভারতের বিপক্ষে। অর্থাৎ গত আসরের চ্যাম্পিয়নদের সঙ্গে লড়াই হবে রানার্সআপ দলটির। টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ হবে আগামী ১৫ অক্টোবর গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন আর রানার্সআপ দলের মধ্যে।

গত আসরে অল্পের জন্য শিরোপাটা ধরে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। এবার প্রায় নতুন একটা দল নিয়েই শিরোপা পুনরুদ্ধারের চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন কোচ ছোটন। সুব্রত কাপ, জেএফএ অনুর্ধ-১৪ কাপ, ইউনিসেফ অনুর্ধ-১৬ ফুটবল এবং বঙ্গমাতা স্কুল ফুটবল আসর থেকে বেছে বেছে দক্ষ-সম্ভাবনাময়ী ফুটবলারদের দলে নিয়েছেন ছোটন। দলের ৯ জনের এর আগে সাফে খেলার অভিজ্ঞতা আছে। ৭ জন খেলেছে সুব্রত কাপে। রাউন্ড রবিন লীগ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত এবারের আসরে চার দলের মধ্যে গ্রুপের সেরা দুই দল খেলার সুযোগ পাবে ফাইনালে।

মেয়েদের বয়সভিত্তিক এই সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়েছে ২০১৭ সাল থেকে। নিজেদের ঘরে প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়ন হলেও পরের আসরে ভারতের কাছে হেরে রানার্সআপ হয়েছিল বাংলাদেশ।

প্রকাশিত : ১১ অক্টোবর ২০১৯

১১/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: