১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

আ লো চি ত খ ব র

প্রকাশিত : ১০ অক্টোবর ২০১৯
  • রিফাত কান্তি সেন

মিথিলা-সৃজিতের ছবি ভাইরাল

ভারতের জনপ্রিয় নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি। ওপার বাংলার এই নির্মাতার সঙ্গে বাংলাদেশী মডেল-অভিনেত্রী মিথিলার প্রেম নিয়ে বেশ কদিন ধরেই চলেছে গুঞ্জন। সেসব গুঞ্জনকে অবশ্য পাত্তা দেননি মিখিলা। তবে মিডিয়া যে তাদের পেছনে লেগে আছে তা তো এমনিতেই বোঝা যায়। আলোচনায় থাকা এ দু’জনকে এবার অষ্টমীর দিন একসঙ্গে দেখা গেছে ভারতের পূজা ম-পে। নিজের ফেসবুকে সে ছবি পোস্ট করেছেন সৃজিত। সেখানে লিখেছেন, ‘তারকাখচিত অষ্টমীর সকাল’। কলকাতার আলীপুরের সুরুচি সংঘের পূজা ম-পে আরও উপস্থিত ছিলেন লোকসভার সাংসদ ও অভিনেত্রী নুসরাত ও তার স্বামী নিখিল জৈন। আরেকটি ছবিতে কলকাতার সুপারস্টার প্রসেনজিৎ কেও দেখা যায়। মিথিলা নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে একটি পূজা ম-পের সামনে দাঁড়ানোর ছবি পোস্ট করেন। যত গুঞ্জনই উঠুক না কেন এসব নিয়ে সৃজিত-মিথিলার কোন মাথাব্যথা নেই।

যৌন পেশায় এসেছিলেন নিসা নূর!

বর্তমানে বলিউড কাঁপানো দীপিকা, প্রিয়াঙ্কাদের মতো হয়তো বিশ^ তাকে এক নামে চেনে না, তবে দক্ষিণী ফিল্মে আশির দশকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী যে ছিলেন নিসা নূর সেটা চোখ বন্ধ করেই বলে ফেলা যায়। নূরের দর্শক মাতানো ছবিগুলো হলো ‘কল্যানা আগাথিগাল’, ‘লায়ার দ্য গ্রেট’, ‘টিক! টিক! টিক’। তামিল আর মালায়লম ছবিতেই বেশি দেখা গিয়েছে তাকে। তখনকার এমন হিট নায়িকার জীবন যে খুব আনন্দে কেটেছে এমনটা নয়! তার জীবনটা ছিল হতাশাগ্রস্ত। শেষ জীবনে এসে অর্থকষ্টে রাস্তায় দাঁড়াতে হয়েছে তাকে। এইডস নামক মরণব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে পরপারে পারি জমাতে হয়েছে তাকে। এক অসভ্য প্রডিউসারের খপ্পরে পড়ে তাকে নামতে হয়েছিল যৌন পেশায় । ২০০৭ সালের ২৩ এপ্রিল এইচআইভি (এইডস) রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় এই জনপ্রিয় নায়িকার।

হৃত্বিক-টাইগারের ‘ওয়্যার’

বক্স অফিসে এখন যে ছবিটি কাঁপাচ্ছে তা নিঃসন্দেহে বলে দেয়া যায় যে ‘ওয়্যার’। গান্ধী জয়ন্তীতে মুক্তি পাওয়া ছবিটিতে অভিনয় করেছেন বলিউডের দুই জনপ্রিয় নায়ক হৃত্বিক রোশন এবং টাইগার শ্রফ। মুক্তির প্রথম দিনেই ছবিতে বাজিমাত করে বক্স অফিসে। একদিনেই আয় ছিল ৫৩ কোটি ৩৫ লাখের মতো রুপী। মুক্তি পাওয়ার তিন দিনের মধ্যেই ১০০ কোটির ক্লাবে পৌঁছে গেছে ছবিটি। চারদিনের হিসাবে ছবিটি আয় করেছে ১২০ কোটি রুপী। ছবিটির আয়ের তথ্য ফাঁস করেন চলচ্চিত্র সমালোচক ও বাণিজ্য বিশেষজ্ঞ তারান আদর্শ। ছবিটির পরিচালক সিদ্ধার্থ আনন্দ সাংবাদিকদের বলেন, ‘ছবিটি বিশ^ব্যাপী ভালবাসা পাচ্ছে। এটি আমাদের জন্য বেশ বড় ব্যাপার।

প্রকাশিত : ১০ অক্টোবর ২০১৯

১০/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: