১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

চট্টগ্রামে ইসি কর্মীসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
  • রোহিঙ্গা ভোটার

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান ও ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তি চেষ্টার ঘটনায় চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কমিশন (ইসি) কার্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর এক কর্মচারীসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। উদ্ধার হয়েছে দীর্ঘদিন ধরে লাপাত্তা থাকা একটি ল্যাপটপ। এ ব্যাপারে মামলা দায়ের হয়েছে ৫ জনের বিরুদ্ধে। চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার নির্বাচনী কর্মকর্তা পল্লবী চাকমা বাদী হয়ে মঙ্গলবার সিএমপির কোতোয়ালি থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

কোতোয়ালি থানার ওসি মোঃ মহসিন জনকণ্ঠকে জানান, যে ৫ জনকে আসামি করা হয়েছে তারা হলেন ডবলমুরিং থানা নির্বাচন কর্মকর্তার অফিস সহায়ক (পিয়ন) জয়নাল আবেদিন, তার দুই সহযোগী বিজয় দাশ ও তার বোন সীমা দাশ এবং সাগর ও সত্য সুন্দর। এরমধ্যে শেষোক্ত দু’জন জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরির প্রজেক্টে কর্মরত ছিলেন। মামলায় সুনির্দিষ্টভাবে ৫ জনের নাম উল্লেখ করা হলেও অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে। মামলার এজাহারভুক্ত আসামিদের মধ্যে সাগর ও সত্য সুন্দর পলাতক রয়েছে।

কোতোয়ালি থানা সূত্রে জানা যায়, গুরুত্ব বিবেচনায় মামলাটি তদন্ত করবে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। পরিদর্শক রাজেশ বড়য়াকে এ মামলা তদন্তের দায়িত্বভার দেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যেই থানা থেকে মামলাটির নথিপত্র গ্রহণ করেছেন তদন্ত কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গত, নির্যাতনের মুখে মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশ থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা নানা কৌশলে বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্ট সংগ্রহের চেষ্টা চালিয়ে আসছে। রমজান বিবি ওরফে লাকী নামের এক রোহিঙ্গা নারীর জাতীয় পরিচয়পত্র গ্রহণের ঘটনা বেশ আলোচিত হয়। একজন ধরা পড়লেও এমন আরও কতজন রোহিঙ্গা বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র গ্রহণ ও ভোটার তালিকায় নাম লিখিয়েছে সে প্রশ্ন এখন আলোচনায় এসেছে। রোহিঙ্গাদের এ তৎপরতায় নড়েচড়ে উঠে নির্বাচন কমিশন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বিভাগ।

বাংলাদেশের কক্সবাজারে থাকা কিছু রোহিঙ্গার পাসপোর্ট পাওয়ার ঘটনাটি প্রকাশের পর তদন্তের উদ্যোগ নেয় নির্বাচন কমিশন।

প্রকাশিত : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

১৮/০৯/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: