২২ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

কাশ্মীরে স্বাভাবিক অবস্থা ফেরাতে ভারতের সুপ্রীমকোর্টের নির্দেশনা

প্রকাশিত : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ জম্মু ও কাশ্মীরে স্বাভাবিক অবস্থা ফেরাতে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে সব ধরনের প্রচেষ্টা নিতে বলেছে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। একইসঙ্গে ওই অঞ্চলের জন্য গ্রহণ করা সব পদক্ষেপের ক্ষেত্রে ভারতের জাতীয় স্বার্থ বিবেচনায় নিতেও সুপ্রীমকোর্ট নির্দেশনা দিয়েছে। খবর এনডিটিভির।

‘আমরা জম্মু ও কাশ্মীরে স্বাভাবিক অবস্থা ফেরাতে সম্ভাব্য সব ধরনের প্রচেষ্টা নিতে নির্দেশনা দিচ্ছি। জাতীয় স্বার্থ বিবেচনায় নিয়ে সুনির্দিষ্ট উপায়ে পরিস্থিতি আগের অবস্থায় ফেরানো হোক, এমনটাই চাইছি আমরা,’ সোমবার বলেছেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের একটি বেঞ্চ। বেঞ্চের বাকি দুই বিচারক হচ্ছেন এসএ ববডে ও এসএ নাজির। কাশ্মীরের নিষেধাজ্ঞাগুলোর নিষ্পত্তি সেখানকার হাইকোর্টের মাধ্যমে করা যেতে পারে বলেও বিচারকরা মন্তব্য করেছেন। বিধিনিষেধ চলাকালে উপত্যকাটিতে কোন প্রাণহানি হয়নি বলে দিল্লী সরকারের পক্ষ থেকে আদালতকে জানানো হয়। আগস্টে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদে জম্মু ও কাশ্মীরকে দেয়া বিশেষ মর্যাদা বাতিল এবং এলাকাটিকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে রূপান্তরিত করার পর ‘সহিংসতা এড়াতে’ সেসব নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল জানিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের আইনজীবী সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা বলেন, ‘একটি বুলেটও খরচ হয়নি, কোন প্রাণহানি ঘটেনি।’ জম্মু ও কাশ্মীরের ৯৩টি থানা এলাকা থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে এবং লাদাখে কোন নিষেধাজ্ঞা নেই উল্লেখ করে উপত্যকাজুড়ে ওষুধের দোকান ও নায্যমূল্যের দোকানগুলো পুরোদমে চালু আছে বলে সাক্ষ্যে জানিয়েছেন তিনি। সুপ্রীমকোর্ট জম্মু ও কাশ্মীরের রাজ্য সরকারকে সেখানকার জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে সব ধরনের পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশনা দিয়েছে। কাশ্মীরভিত্তিক সকল খবরের কাগজ চালু আছে এবং সরকার সব ধরনের সহায়তা দিয়ে আসছে বলে নয়াদিল্লী সরকারের পক্ষ থেকে বিচারকদের জানানো হয়েছে।

প্রকাশিত : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

১৭/০৯/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: