২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

পরিচ্ছন্ন নেতৃত্ব নিয়ে আসুন ॥ হানিফ

প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৭:৩০ পি. এম.
পরিচ্ছন্ন নেতৃত্ব নিয়ে আসুন ॥ হানিফ

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্বে দূর্নীতিবাজদের পরিহার করে পরিচ্ছন্ন নেতৃত্ব নিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে করে তিনি বলেন, বিএনপি নেতৃবৃন্দের কাছে আমার অনুরোধ থাকবে, যারা মাঠে নেমে এখনো আন্দোলন কর্মসূচি করছেন আপনারা আপনাদের এই দূর্নীতিবাজ নেতাদের পরিহার করুণ। যদি আপনারা এ দেশের জনগনের জন্য রাজনীতি করতে চান, তাহলে দলে পরিচ্ছন্ন নেতৃত্ব নিয়ে আসুন। তাহলে আপনাদের উপর দেশের জনগনের আস্থা আসতে পারে।

বুধবার রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে গ্রাম ডাক্তারদের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখতে গিয়ে হানিফ আরও বলেন, বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া দূর্নীতি মামলার রায়ে কারাগারে। দেশে আইন আছে, খালেদা জিয়া এতিমের টাকা আত্মসাত করেছেন, এই জন্য তাঁর বিচার হয়েছে। আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে কর্মসূচি পালনে বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, ’দেখলাম বিএনপির নেত্রীর জন্য তার দলের কিছু নেতাকর্মী অনশন করেছে, মানববন্ধন করেছে। কী কারণে তারা এসব করছে? বিজ্ঞ আদালত তথ্য উপাত্ত ও সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে রায় দিয়েছে, এখানে আমাদের কী দোষ?

তিনি বলেন, এই মামলাটা আমরা দেই নি, এই মামলা ২০০৮ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিয়েছিল। এই মামলা দীর্ঘ দশটি বছর চলেছে। এই মামলার রায়ের জন্য বিজ্ঞ আদালত তথ্য উপাত্তের উপর ভিক্তি করে রায় দিয়েছে, এখানে সরকারের কী দোষ? এখানে আওয়মী লীগ বা আওয়ামী লীগ সরকারের কোন দায় নেই। বিএনপি নেতারা এখন এই অপরাধকে ধামাচাপা দিয়ে অপরাধ আড়াল করার জন্য নানাভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে খালেদা জিয়া তৎকালিন সময়ে শপথ ভঙ্গ করেছেন দাবি করে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, আজকে বিএনপির অনেক নেতারা বলেন হলমার্কসহ ব্যংক দূর্নীতির বিচার সরকার করে না। হলমার্ক ব্যংক থেকে লোন নিয়েছিল, ব্যবসায়ী হিসেবে তারা লোন নিয়েছিল।

আর দেশের প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রের জনগনের সমস্ত দায় দায়িত্ব দেখভালের শপথ নিয়েছিলেন। শপথ নেওয়ার পরে রাষ্ট্রের কোষাগার থেকে একটি টাকা আত্মসাত হওয়া মানেও শপথ ভঙ্গ হওয়ার শামিল। এখানে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে খালেদা জিয়া শপথ ভঙ্গ করেছেন, টাকার পরিমান মুখ্য বিষয় নয়। খালেদা জিয়অ শপথ ভঙ্গ করেই টাকা আত্মসাত করেছেন। আজকে আদালত তাঁকে শাস্তি দিয়েছে, তাঁকে বিচারের মুখোমুখি হতে হয়েছে।

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে হানিফ বলেন, কোন লজ্জায় আপনারা আপনাদের একজন দূর্নীতিবাজ নেত্রীর জন্য মানববন্ধন করেনঅ? আপনারা রাজনীতি করেন, তাই বলে নীতি-নৈতিকতা কিছুই আপনাদের থাকবে না? আপনার দলের নেত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী ছিলেন বলেই কী সকল আইনের উর্ধ্বে? আইন কি একেক জনের জন্য একেক রকম হবে? তিনি বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের আইন দু-রকম হতে পারে না। আপনার জন্য যে আইন আমাদের জন্যও একই আইন, আইন সবার জন্য সমান।

বিএনপি রাজনৈতিকভাবে দেওলিয়া হয়েছে দাবি করে মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, বিএনপি রাজনৈতিকভাবে কতখানি দেওলিয়া হলে একজন দূর্নীতিবাজ মামলার রায়ে দন্ডিত হয়েছেন, অথচ তাঁর জন্য মানববন্ধন করছে। আজকে এটা প্রমানিত হয়েছে বিএনপি এদেশের জনগনের জন্য রাজনীতি করে না। মানুষের জন্য করে না। রাজনীতি করে তাদের ব্যক্তিগত প্রয়োজেনে, নিজের জন্য। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিকভাবে বিএনপির শীর্ষ নেতারা দন্ডিত দূর্নীতিবাজ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। এই ধরণের একটি রাজনৈতিক দল যার শীর্ষ নেতারা দূর্নীতির সঙ্গে জড়িত তাদের বাংলাদেশে রাজনীতি করার কোন অধিকার থাকতে পারে না।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি আবদুস সাত্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, ঢাকা মহানগর নেতা আবদুল হক সবুজ প্রমূখ। সভা পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবু ইউসুফ খান বাদল।

প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৭:৩০ পি. এম.

১৪/০২/২০১৮ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

জাতীয়



শীর্ষ সংবাদ: