১৮ জানুয়ারী ২০১৮,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ডিজিটাল মেলায় ডিজিটাল পুলিশ স্টলে কৌতূহলী মানুষের ভিড়


ডিজিটাল মেলায় ডিজিটাল পুলিশ স্টলে কৌতূহলী মানুষের ভিড়

জান্নাতুল মাওয়া সুইটি ॥ তথ্যপ্রযুক্তির অগ্রগতিতে পিছিয়ে নেই বাংলাদেশ পুলিশ। এখন সময় বাংলাদেশের, ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে পুলিশ সেবা প্রদান করতে প্রস্তুত। ডিজিটাল মেলায় দৃশ্যমান ডিজিটাল পুলিশ সেটি প্রমাণ করে দিল। ডিজিটাল বাংলাদেশে ডিজিটাল পুলিশ প্রযুক্তিনির্ভর হয়ে কীভাবে জনগণকে সেবা প্রদান করছে তা জানতে কৌতূহলী অনেক দর্শনার্থী উঁকি মারছেন পুলিশ স্টলে। নাগরিকসেবা, তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ, ট্রাফিক প্রসিকিউশন সিস্টেম, অপরাধী শনাক্তকরণসহ পুলিশের নানাবিধ অভ্যন্তরীণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে। এসব ডিজিটাল প্রযুক্তি ও তথ্য উপকরণ নিয়ে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত ‘ডিজিটাল মেলা’য় অংশ নিয়েছে ডিজিটাল পুলিশ। পুলিশের স্টলে প্রচারিত হচ্ছে নিজেদের বিভিন্ন ডিজিটাল কার্যক্রম। মেলায় অংশগ্রহণকারীরা জেনে নিতে পারছেন নতুন আঙ্গিকে চালু হওয়া সব সেবা সম্পর্কে। প্রযুক্তিকে আশ্রয় করে পুলিশ আরও বেশকিছু উল্লেখযোগ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যে সাইবার ট্রেনিং সেন্টার, ডিজিটাল ফরেনসিক ল্যাবরেটরি, সাইবার ট্রেনিং সেন্টার, ক্রাইম ডাটাবেস তৈরি, ক্রাইমসিন ভ্যান, ডিএনএ ল্যাব, অনলাইন প্রবাসী সহায়তাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে পুলিশ প্রবেশ করেছে নতুন যুগে।

পুলিশ সদর দফতর সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ পুলিশ নাগরিকদের সেবায় এই মুহূর্তে বেশকিছু ডিজিটাল সার্ভিস দিচ্ছে। জরুরী সেবার নম্বর ৯৯৯, সিটিজেন ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (সিআইএমএস), অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স, বাংলাদেশ পুলিশ হেল্প লাইন, ট্রাফিক প্রসিকিউশন সিস্টেম, হ্যালো সিটি এ্যাপ, পাসপোর্ট ভেরিফিকেশন ও অনলাইন ইমিগ্রেশন, সিটি সার্ভিলেন্স সিস্টেম, ই-ট্রাফিক প্রসিকিউশন সিস্টেম, লাইভ ট্রাফিক আপডেট, ফেসবুকে বাংলাদেশ পুলিশ, অনলাইন নিউজ পোর্টাল।

জরুরী সাহায্যে ৯৯৯ ॥ সরকারের ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার ক্ষেত্রে উদ্যোগী পুলিশও। ৯৯৯ নম্বরে কল করে অতি দ্রুত ও খুব সহজে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও এ্যাম্বুলেন্স সেবা পেতে পারেন যেকোন নাগরিক। প্রাণনাশের আশঙ্কা, হতাহতের ঘটনা বা আশঙ্কা দেখা দিলে, অপরাধ সংঘটিত হতে দেখলে বা দেখার আশঙ্কা থাকলে, অগ্নিকা- দেখা দিলে ও এ্যাম্বুলেন্সের প্রয়োজন হলে সম্পূর্ণ ‘ফ্রি’তে কল করুন ৯৯৯ নম্বরে। কল সেন্টারের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় নিয়োজিত রয়েছে পুলিশ সদস্যরা।

সিটিজেন ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (সিআইএমএস) ॥ বাংলাদেশে বসবাসরত নাগরিকদের সঠিক পরিচয় নির্ধারণ, ভুয়া নাম ঠিকানা প্রদানকারীদের শনাক্তকরণ, অপরাধ প্রতিরোধ, অপরাধীদের শনাক্তকরণে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) উদ্যোগে চালু হয়েছে সিআইএমএস ডাটাবেস।

অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ॥ নাগরিকের সেবা দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে চালু হয়েছে অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ব্যবস্থা। অতি সহজে ঘরে বসেই অনলাইনে এই সাইটে পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের জন্য আবেদন করা যাচ্ছে। যথাযথ আবেদনের পর ঢাকা শহরে ৭ দিন ও জেলা শহরে সর্বোচ্চ ১৫ দিনের মধ্যে প্রত্যাশীদের হাতে পৌঁছে যাবে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট।

বাংলাদেশ পুলিশ হেল্প লাইন ॥ স্মার্টফোন ব্যবহার করে যে কেউ নিকটস্থ থানায় সাহায্যের জন্য তথ্য/অনুরোধ পাঠাতে পারেন। প্রেরিত তথ্য একই সঙ্গে থানার অফিসার ইনচার্জসহ সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্মকর্তাগণ দেখতে পারবেন। ফলে পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ সহজতর হবে। গুগল প্লে স্টোর থেকে বিডি পুলিশ হেল্প লাইন এ্যাপটি ডাউনলোড ও ব্যবহার করে এ সেবা পাওয়া যাচ্ছে।

ট্রাফিক প্রসিকিউশন সিস্টেম ॥ তথ্যপ্রযুক্তির কল্যাণে ট্রাফিক পুলিশের প্রসিকিউশন ব্যবস্থাও এখন হাতের মুঠোয়। এখন পজ ডিভাইজের মাধ্যমে মুহূর্তেই গাড়ির রেজিস্ট্রেশন যাচাই, ড্রাইভিং লাইসেন্স যাচাইসহ মামলা দেয়া হচ্ছে।

হ্যালো সিটি এ্যাপ ॥ জঙ্গীবাদ, উগ্রবাদ, সাইবার ক্রাইম, বিস্ফোরক, মাদক, আন্তঃদেশীয় অপরাধ, জালিয়াতি ও মোস্ট ওয়ান্টেড অপরাধীদের তথ্য নিজের পরিচয় গোপন রেখে পুলিশে দেয়া যাবে হ্যালো সিটি এ্যাপ।

পাসপোর্ট ভেরিফিকেশন ও অনলাইন ইমিগ্রেশন ॥ পাসপোর্টের জন্য আবেদন করে ঘরে বসে চেক করা যাবে পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনের সর্বশেষ অবস্থা। এজন্য ভিজিট করতে হবে ইমিগ্রেশনের সাইটে। তদন্তকারী কর্মকর্তার মোবাইল নম্বরসহ বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে পারবেন খুব সহজে। এছাড়া ইমিগ্রেশন সম্পর্কিত যাবতীয় প্রয়োজনীয় তথ্য ও নির্দেশনা জানতেও সহায়তা করবে সাইটটি।

সিটি সার্ভেইল্যান্স সিস্টেম ॥ রাজধানী ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টসমূহে সার্বক্ষণিক নজরদারিতে স্থাপন করা হয়েছে সিটি সার্ভিলেন্স সিস্টেম। ট্রাফিক সংক্রান্ত অপরাধ, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা, গাড়ি চুরি অপরাধ ও বিভিন্ন পরিস্থিতি প্রতি মুহূর্তে স্মৃতিতে ধরে রাখছে সিসিটিভি ক্যামেরার ইলেক্ট্রনিক চোখ। পরবর্তীতে তা ব্যবহার করা যাচ্ছে বিভিন্ন মামলার আলামত ও সাক্ষ্যপ্রমাণ সংগ্রহের কাজে।

লাইভ ট্রাফিক আপডেট ॥ ঢাকা মহানগরীর অন্যতম সমস্যা যানজটে অতিষ্ঠ নগরবাসীর যাতায়াতকে সহজ করেছে ঢাকা মহানগর এলাকার ‘লাইভ ট্রাফিক আপডেট’। ডিএমপি’র ট্রাফিক কন্ট্রোলরুমের সহায়তায় রেডিও স্পাইস ৯৬.৪ এফএম প্রচার করছে সড়কের সর্বশেষ অবস্থা।

ফেসবুকে বাংলাদেশ পুলিশ ॥ তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে সবচেয়ে দ্রুত ও কার্যক্রম মাধ্যমের মধ্যে ফেসবুক অন্যতম। জনসচেতনামূলক বিভিন্ন পরামর্শ, আইনী পরামর্শ ও ক্ষেত্রবিশেষে পুলিশের বিভিন্ন নির্দেশনা প্রচার করতে বাংলাদেশ পুলিশ ও ঢাকা মহানগর পুলিশ তাদের অফিসিয়াল ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ থেকে সবসময় জনসম্পৃক্ত রয়েছে।

অনলাইন নিউজ পোর্টাল ॥ পুলিশের একমাত্র অনলাইন নিউজ পোর্টাল ডিএমপি নিউজ। বর্তমানে এটি পুলিশের অন্যতম মুখপাত্র হিসেবে কাজ করছে। সার্বক্ষণিক বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যনির্ভর সংবাদ প্রচার করছে ডিএমপি নিউজ।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: