১৯ জানুয়ারী ২০১৮,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কালকিনিতে রাজাকারের বিচারের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ


কালকিনিতে রাজাকারের বিচারের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালকিনি, মাদারীপুর ॥ ১৯৭১ সালে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধকালীন রাজাকার কর্তৃক ফাসিয়াতলা হাট ও আবুল হাসেম সরদারের বাড়ি পোড়ানোকালে গুলিতে গনশহীদদের জন্য স্মৃতিস্তম্ভ নির্মান এবং রাজাকারদের দ্রুত বিচারের দাবিতে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ বুধবার সকালে উপজেলার আলীনগরের ফাসিয়াতলাহাটে এ কর্মসুচি অনুষ্ঠিত হয়।

লিখিত অভিযোগে জানাগেছে, ১৯৭১ সালে যুদ্ধকালীন সময় ফাসিয়াতলাহাটে রাজাকারদের সহযোগীতায় গনহত্যা চালানো হয়। ফাসিয়াতলাহাটের সমস্ত দোকানপাট পুড়িয়ে দেয়া হয়। সেই সকল স্থানীয় রাজাকারদের দ্রুত তালিকা প্রকাশ করে বিচারের আওয়াতায় আনতে হবে। এবং সেই সময় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের সহযোগীতার দাবি জানান মুক্তিযোদ্ধারা।

অনুষ্ঠানে আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান মিলনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ শাহজাহান হাওলাদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মালেকুজ্জামান মালেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবদুল জলিল, ডেপুটি কমান্ডার আবদুল মালেক, এনায়েতনগ ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুল্লাহ মারুফ, আ’লীগের সভাপতি আবদুস ছালাম, শিক্ষক আনোয়ার হোসেন ও সাবেক ইউপি সদস্য সেলিম সরদার।

সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মালেকুজ্জামান মালেক অভিযোগ করে বলেন, আমাদের কালকিনিতে যে সকল ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা আছে তাদেরকে চিহ্নিত করে বাদ দেয়ার দাবি জানাই। এছাড়া আমাদের এনায়েতনগরে বেশ কয়েকজন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা রয়েছে। তাদেরকে বাদ দেয়ার জোর দাবি জানাই। এবং কি কোন মতে ওই সকল রাজাকারদের বাংলার মাটিতে ঠাই হবেনা। দ্রুত রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ না করা হলে আমরা কঠোর কর্মসুচি চালিয়ে যাব।

এ ব্যাপারে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ শাহজাহান হাওলাদার বলেন, যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে সকল ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের বাদ দিয়ে দেয়া হবে। এবং চিহ্নিত রাজাকারদের তালিকা করা হবে শিগ্রই।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: