২০ জানুয়ারী ২০১৮,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

শিক্ষার্থীদের হেনস্তার প্রতিবাদে বাস ভাঙ্গচুর


শিক্ষার্থীদের হেনস্তার প্রতিবাদে বাস ভাঙ্গচুর

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অতিরিক্ত ভাড়া নেয়ার অভিযোগ এনে দুই ছাত্রকে হেনস্তার প্রতিবাদে রাজধানীর ফার্মগেটে বাস ভাঙচুর চালিয়েছে সরকারি বিজ্ঞান কলেজের শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার সকালে যাত্রাবাড়ী থেকে সাভার রুটের লাব্বাইক পরিবহনের বাস ভাঙচুর করে তারা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে সাভার-নবীনগর থেকে মতিঝিলগামী লাব্বাইক পরিবহনে তেজগাঁও বিজ্ঞান কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থীকে লাঞ্ছিত করার ঘটনা ঘটে। পরে তারা ফার্মগেটে এসে বাস ভাঙচুর করে। এ সময় আতঙ্কিত যাত্রীরা বাস থেকে নেমে পড়ে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কলেজের এক শিক্ষার্থী জানান, গাবতলী, টেকনিক্যাল, শ্যামলী থেকে লাব্বাইক পরিবহন কোনও যাত্রী তুলতে চায় না। যাত্রী তুললেও ফার্মগেট পর্যন্ত ভাড়া রাখে ২৫/৩০ টাকা। এছাড়া বাসের কর্মীরা ছাত্রদের কাছ থেকে হাফ ভাড়া নিতে চান না। ওই রুটে কোথায় ছাত্র দেখলে গাড়ির দরজা আটকে দেন। সাভার থেকে অনেক শিক্ষার্থী ওই গাড়িতে উঠতে পারেন না। তিনি জানান, লাব্বাইক পরিবহনের বাসগুলো সিটিং সার্ভিসের নাম করে বাড়তি টাকা আদায় করে। গাড়ি না পাওয়ায় অনেকে সময় মতো কলেজে আসতে পারেন না। সিটিং ভাড়া আদায় করা হলেও তারা যেখানে সেখানে থামিয়ে যাত্রী তোলেন। মঙ্গলবার সকালে আমাদের বিজ্ঞান কলেজের দু’জন শিক্ষার্থীকে তারা লাঞ্ছিত করে। আমরা খবর পেয়ে তাদের গাড়ি থামিয়ে কারণ জানতে চাই। তখন তারা আবার চড়াও হয়। এ সময় তাদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয়। এ সময় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বা অন্য কেউ ওই গাড়ি লক্ষ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে বাসের গ্লাস ভেঙে যায়। পরে পুলিশ আসার সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষার্থীরা পালিয়ে যয়। তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মাজহারুল ইসলামকে জানান, বিজ্ঞান কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে লাব্বাইক পরিবহনের চালক ও হেলপারের সঙ্গে ভাড়া নিয়ে ঝামেলা হয়। এরপর শিক্ষার্থীরা তিনটি বাস ভাঙচুর করেছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক আছে। তিনি জানান,এ ঘটনায় কোনও হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: