১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গজারিয়ায় ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় পিটিয়ে আহত


গজারিয়ায় ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় পিটিয়ে আহত

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়নের হোগলাকান্দি গ্রামে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় এক স্কুল ছাত্রীর বাবা ও চাচাকে পিটিয়ে আহত করছে রিয়াদ হোসেন (২৭)নামে এক বখাটে ও তার চার সহযোগী।

হামলায় আহত স্কুল ছাত্রীর বাবা মোঃ জিয়াউর রহমান (৩৬) ও চাচা আশ্রাফুল ইসলাম (৩২) বর্তমানে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ভুক্তভোগী ঐ ছাত্রীর বাড়ী ইমামপুর ইউনিয়নের হোগলাকান্দি গ্রামে। ভবেরচর ওয়াজীর আলী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে চলতি বছর জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও মেয়ের বাবার সাথে কথা বলে জানা যায়, গত তিন মাস আগ থেকে লক্ষ্মীপুরা গ্রামের কালু মিয়ার বখাটে ছেলে রিয়াদ হোসেন তার নানার বাড়ী হোগলাকান্দিতে থেকে তার মেয়েকে স্কুলে যাওয়া আশার পথে অশালীন কথা বলে উত্ত্যক্ত করত। কিছুদিন আগে মেয়েটি প্রাইভেট পড়তে যাবার পথে বখাটে রিয়াদ মোবাইল ফোনের ক্যামেরায় মেয়েটির ছবি তুলে।

বিষয়টি বাসায় গিয়ে অভিভাবকদের জানালে বখাটে রিয়াদের কাছে ছবি তুলার কারণ জানতে চান তারা তবে রিয়াদ তাদের সাথে অশোভন আচরণ করে। তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে জানালে,রিয়াদের মোবাইল চেক করলে মেয়েটির ছবি পাওয়া যায়। সে বার ক্ষমা প্রার্থনা করায় তাকে শেষ বারের মত মাফ করে দেওয়া হয়। এ ঘটনার রেশ ধরে বুধবার দুপুরে মেয়ের চাচা আশ্রাফুল মুদী দোকানের জন্য মালামাল ক্রয় করে বাড়ী ফেরার পথে বখাটে রিয়াদ ও চার সহযোগী তার পথ রোধ করে তাকে হকিস্টিক ও ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। খবর মেয়ে মেয়ের বাবা জিয়াউর রহমান ঘটনাস্থলে আসলে তাকেও পিটিয়ে আহত করে বখাটেরা। এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

বর্তমানে তিনি আর তার ছোট ভাই আশ্রাফুল গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসাধীন আছেন। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, জিয়াউর রহমানে মাথায় ও আশ্রাফুলের দুই হাতে,শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনায় ঐ ছাত্রীর দাদা বশির উদ্দিন বাদী হয়ে বুধবার সন্ধ্যায় গজারিয়ায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। বিষয়টি স¤পর্কে জানতে গজারিয়া থানার অফিসারস ইনচার্জ মো: হারুন-অর- রশীদের সাথে যোগাযোগ করা হলে ঘটনার সত্যতা শিকার করে তিনি জানান, আসামী আটকে তাদের চেষ্টা চলছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: