১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নেইমারের জোড়া গোলে পিএসজির বড় জয়


নেইমারের জোড়া গোলে পিএসজির বড় জয়

অনলাইন ডেস্ক ॥ নেইমারের দুর্দান্ত পারফর্মেন্সের দিনে গোল পেলেন আক্রমণভাগের অপর দুই তারকা কাভানি ও এমবাপেও। এতেই সেল্টিকের বিপক্ষে গোল উৎসব করলো প্যারিস সেন্ট জার্মেই।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে সেল্টিককে ৭-১ গোলে হারিয়েছে পিএসজি। জোড়া গোল করেন নেইমার ও কাভানি। অপর তিন গোলদাতা এমবাপে, ভেরাত্তি ও আলভেজ।

ঘরের মাঠে শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি পিএসজির। ম্যাচের প্রথম মিনিটেই গোল খেয়ে বসে দলটি। কর্নার থেকে ডি-বক্সে বল পেয়ে ফরাসি ফরোয়ার্ড মুসা ডেম্বেলের নেওয়া জোরালো শট কাভানির গায়ে লেগে দিক পাল্টে জালে জড়ায়।

তবে খুব বেশি সময় পিছিয়ে থাকতে হয়নি স্বাগতিকদের। ম্যাচের নবম মিনিটে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান নেইমার। ফরাসি মিডফিল্ডার আদ্রিওঁ রাবিওটের বাড়ানো বল ডি-বক্সের মধ্যে কিছুটা এগিয়ে দুরূহ কোণ থেকে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ব্রাজিলিয়ান এই তারকা।

ম্যাচের ২২ মিনিটে দলকে লিড এনে দেওয়ার সঙ্গে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন নেইমার। ভেরাত্তির সঙ্গে একবার বল দেওয়া নেওয়া করে সামনে থাকা এক ডিফেন্ডারকে কোনো সুযোগই না দিয়ে কোনাকুনি শটে বল জালে জড়ান ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

ছয় মিনিট পর ব্যবধান বাড়ান কাভানি। ডান দিক থেকে আলভেজের ক্রসে বল নেইমারের কাঁধে লেগে ডি বক্সের ছয় গজে বল পান কাভানি। আলতো টোকায় তা জালে পাঠিয়ে দেন উরুগুয়ের স্ট্রাইকার।

ম্যাচের ৩৫ মিনিটে গোলদাতার তালিকায় নাম লেখান উঠতি তারকা এমবাপে। মার্কিনিয়োসের পাস পেয়ে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন তরুণ ফরাসি এই ফরোয়ার্ড। ফলে ৪-১ এ এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় পিএসজি।

বিরতি থেকে ফিরেও ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখে স্বাগতিক শিবির। ম্যাচের ৭২ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলের সুযোগ পান এমবাপে। তবে ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পেয়ে ঠিকমতো শট নিতে ব্যর্থ হন এই তারকা।

এর তিন মিনিট নিচু কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন ভেরাত্তি। ম্যাচের ৭৯তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা কাভানি। বাঁ-দিক থেকে হাভিয়ের পাস্তোরের দারুণ ক্রসে জোরালো ভলিতে বল জালে জড়ান উরুগুয়ের এই তারকা।

চলতি আসরে গ্রুপ পর্বে ছয়টি করে গোল করলেন নেইমার ও কাভানি। তবে আট গোল নিয়ে তালিকার শীর্ষে রোনালদো। এক মিনিট পর ২২ গজ দূর থেকে জোরালো উঁচু শটে সেল্টিকের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন ব্রাজিলের ডিফেন্ডার আলভেজ।

এ জয়ে পাঁচ ম্যাচ সবকটিতে জিতে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে ‘বি’ গ্রুপের শীর্ষেই আছে পিএসজি। অন্য ম্যাচে অ্যান্ডারলেখটকে ২-১ গোলে হারানো বায়ার্ন মিউনিখ ১২ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে।

‘ডি’ গ্রুপে জুভেন্টাসের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করে শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে বার্সেলোনা। তিন জয় ও দুই ড্রয়ে ১১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান নিশ্চিত হয়ে গেছে তাদের। তিন পয়েন্ট পিছিয়ে থেকে শেষ ষোলোর লড়াইয়ে আছে জুভেন্টাস।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: