১২ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দেশের প্রথম ‘আয়রনম্যান’ আরাফাতকে পিকেএসএফের সংবর্ধনা


দেশের প্রথম ‘আয়রনম্যান’ আরাফাতকে পিকেএসএফের সংবর্ধনা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রতিযোগিতার তিনটি ধাপ শেষ করতে সময় বেঁধে দেয়া হয় ১৭ ঘণ্টা। শুরুটা হয় ৩ দশমিক ৮ কিলোমিটার সাঁতারের মধ্য দিয়ে। সাঁতার শেষ করে ডাঙায় উঠার সাথে সাথেই প্রত্যেক প্রতিযোগীকে সাইকেল চালাতে হয় ১৮০ কিলোমিটার। সর্বশেষ ধাপে দৌড়াতে হয় একটি ফুল ম্যারাথন (৪২ দশমিক ২ কিলোমিটার) দৌড়। সাঁতার, সাইক্লিং এবং ম্যারাথনের এ সম্পূর্ণ পথটি পাড়ি দিতে মোহাম্মদ সামছুজ্জামান আরাফাত সময় নিয়েছেন ১২ ঘণ্টা ৪৩ মিনিট ২৮ সেকেন্ড। এর মাধ্যমে তিনি পেয়েছেন বাংলাদেশের ‘প্রথম আয়রনম্যানের’ স্বীকৃতি। গত ১১ নবেম্বর মালয়েশিয়ার লাংকাওয়িতে অনুষ্ঠিত হয় আয়রনম্যান -২০১৭ প্রতিযোগিতা। বিশ্বের অন্যতম চ্যালেঞ্জিং এই আসরে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন আরাফাত।

প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ‘আয়রনম্যান’ খেতাব অর্জন করার জন্য পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) আজ রবিবার আরাফাতকে সংবর্ধনা দিয়েছে। একই সাথে তাকে পিকেএসএফ-এর সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া কর্মসূচির শুভেচ্ছাদূত হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পিকেএসএফ ভবনের এ আয়োজনে আরাফাতের হাতে ক্রেস্ট এবং আয়রন-ম্যান প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য পৃষ্ঠপোষকতা করে প্রদত্ত এক লাখ টাকার অনুদানের চেক তুলে দেন পিকেএফএফ-এর সভাপতি ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ। এ সময় পিকেএসএফ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ আবদুল করিম ও পিকেএসএফ-এর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরাফাত আয়রন-ম্যান প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন এবং এই প্রতিযোগিতায় যাওয়ার বিষয়ে পিকেএসএফ-এর পৃষ্ঠপোষকতার জন্য বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানান। অনুষ্ঠানে ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, উন্নয়নকে টেকসই করার জন্য একটি দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি মানবিক সক্ষমতা অর্জন আবশ্যক। তাই সকল মানুষকে সাথে নিয়ে উন্নয়ন অর্জন করতে হবে। সবার জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে এবং আরাফাতের মত বাংলাদেশে আরও অনেক ক্রীড়াবিদ বাংলাদেশের নাম বিশ্ব দরবারে উজ্জ্বল করবে সেই প্রত্যাশা করেন এবং আরাফাতকে অভিনন্দন জানান। পিকেএসএফ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ আবদুল করিম বলেন, এতদিন বাংলাদেশের রাজনৈতিক ব্যক্তিরাই বিশ্বে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতো, ক্রীড়াসহ অন্যান্য বিভাগ বেশ পিছিয়ে ছিলো তবে বর্তমানে খেলাধুলার ক্ষেত্রে ভিন্নতা দেখা দিচ্ছে। ক্রিকেটের পাশাপাশি আরও অনেক ক্রীড়াবিদ বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছে এবং সফল হচ্ছে। আয়রন-ম্যান খেতাব অর্জনের জন্য তিনি আরাফাতকে অভিনন্দন জানান এবং বাংলাদেশে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক উন্নয়নে পিকেএসএফ-এর উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

অনুষ্ঠানে পিকেএসএফ-এর উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (কার্যক্রম) মোঃ ফজলুল কাদের পিকেএফএফ পরিচালিত সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া কর্মসূচির প্রেক্ষিত সম্পর্কে বক্তব্য প্রদান করেন। সুস্থ সংস্কৃতি ও ক্রীড়া-চর্চার মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়নের সাথে মানুষের সুকুমার বৃত্তি এবং ক্রীড়ামনস্কতার চর্চাকে সম্পৃক্ত করে টেকসই মানবিক উন্নয়ন ও দারিদ্র্য বিমোচনের বহুমাত্রিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে পিকেএসএফ সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এই কর্মসূচির আওতায় কর্মএলাকায় অঞ্চল ও মৌসুমভেদে প্রচলিত খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে পিকেএসএফ।

গত ২ নভেম্বর এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পিকেএফএফ সভাপতি ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ “আয়রন-ম্যান ২০১৭” প্রতিযোগিয়ায় আরাফাতের অংশগ্রহণের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে তার হাতে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা তুলে দেন এবং তাঁকে এক লক্ষ টাকা অনুদান প্রদানের মাধ্যমে আয়রনম্যান প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের পৃষ্ঠপোষকতা করেন।

প্রতিযোগিতার অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে জানা গেছে, আরাফাত সাঁতারে ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিট ৭ সেকেন্ড, সাইকেল চালানোয় ৬ ঘণ্টা ৩৪ মিনিট ২৪ সেকেন্ড এবং ম্যারাথন শেষ করতে ৪ ঘন্টা ৪০ মিনিট ১৭ সেকেন্ড সময় নেন। প্রতিযোগিতায় আরাফাতের সার্বিক অবস্থান ২৭৮ তম। প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছেন ফ্রান্সের গুলিয়েম রমেইন। তিনি তিনটি ধাপ শেষ করতে মোট সময় নিয়েছেন ৮ ঘণ্টা ৩২ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড। এর মধ্যে সাঁতারে ৪৮ মিনিট ৬ সেকেন্ড, সাইক্লিংয়ে ৪ ঘণ্টা ২৯ মিনিট ১৭ সেকেন্ড এবং ম্যারথনে ৩ ঘণ্টা ১০ মিনিট ৫৮ সেকেন্ড লেগেছে তার।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: