১২ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি আনন্দের: ফখরুল


বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের  ভাষণের স্বীকৃতি আনন্দের: ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি আনন্দের বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ৪১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ভাসানী স্মৃতি সংসদ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের নাগরিক সমাবেশ প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে খুব বড় সমাবেশ হচ্ছে। এই সমাবেশকে বলা হচ্ছে এটা কোনো রাজনৈতিক সমাবেশ নয়, এটা হচ্ছে একটা রাষ্ট্রীয় নাগরিক সমাবেশ। এটা হচ্ছে, বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চে যে ভাষণ দিয়েছিলেন, ইউনেস্কো সেটা তালিকাভুক্তি করেছে, সেজন্য এই সমাবেশ। তো ভালো কথা। আমরা তো মনে করি যে, এটা আনন্দের কথা। তবে প্রত্যেকটা স্কুল-কলেজকে চিঠি দেয়া হয়েছে না আসলে শিক্ষকদের চাকরি থাকবে না। ব্যাংকে চিঠি দেয়া হয়েছে না আসলে পাঁচ দিনের বেতন কাটা যাবে। সকালে দেখে এসেছি, বড় বড় বাসে স্কুলের বাচ্চাদের তোলা হচ্ছে।

সরকারকে উদ্দেশ করে মির্জা ফখরুল বলেন, একদিকে আপনারা সমস্ত মানুষের অধিকারগুলো কেড়ে নিচ্ছেন। মিথ্যা দিয়ে সত্যকে ঢেকে দিচ্ছেন। অন্যদিকে মানুষকে প্রতারিত করছেন। বঙ্গবন্ধুর দল আওয়ামী লীগ এখন ক্ষমতায় অথচ নাগরিকদের সব স্বাধীনতা হরণ করে নেয়া হয়েছে।

ভাসানী স্মৃতি সংসদের সভাপতি জিয়াউল হক মিলুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক মন্ত্রী জাকারিয়া খান চৌধুরী, নুর মোহাম্মদ খান, জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা নাজমুল হক নান্নু, মেহেদি আহমেদ রুমী, প্রয়াত ন্যাপ নেতা মসিউর রহমান যাদু মিয়ার মেয়ে ন্যান্সি রহমার, ভাসানী স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক কাজী মনিরুল হুদা প্রমুখ।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: