১৫ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ভোলায় লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলার ডুবি ॥ নিহত ১, নিখোঁজ-২


ভোলায় লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলার ডুবি ॥ নিহত ১, নিখোঁজ-২

নিজস্ব সংবাদদাতা, ভোলা ॥ ভোলার মেঘনা নদীতে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ভোলার চরফ্যাশন গামী এম ভি ফারহান-৫ লঞ্চের ধাক্কায় একটি মাছ ধরা ট্রলার ডুবে গেছে। এতে করে মোঃ গিয়াস উদ্দিন (১৭) নামে এক জেলে নিহতসহ ৩ জন আহত হয়েছে। এছাড়ারও মোঃ মিরাজ (১৫) ও মোঃ কামাল (৩৫) নামে আরো ২ জন নিখোঁজ রয়েছেন। ঘটনাটি ঘটে শুক্রবার ভোর রাতের দিকে বোরহানউদ্দিন উপজেলার বড় মানিকা ইউনিয়নের উত্তর বাটামারা আলিমুদ্দিন মাছ ঘাট সংলগ্ন মেঘনা নদীতে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী আহত মোঃ জসিম, মোঃ মিজান ও মোঃ বিল্লাল জানায়, রাত সাড়ে তিনটার দিকে তারা মেঘনা নদীতে জাল ফেলে ইলিশ শিকার করছিল। কিছু সময় পর ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা এম ভি ফারহান-৫ লঞ্চটি দ্রুত চালিয়ে এসে তাদের মাছ ধরার ট্রলারকে ধাক্কা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। এ সময় তারা প্রাণ বাঁচাতে ট্রলার থেকে নদীতে ঝাপিয়ে পরলে পার্শ্ববর্তী মাছ ধরার ট্রলার এসে তাদেরকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তাদের ট্রলারে উঠায়। পরবর্তীতে ওই ট্রলার সহ তারা দূর্ঘটনাকৃত ট্রলারের কাছে এসে দেখেন দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া ট্রলারের মধ্যে মোঃ গিয়াস উদ্দিন মৃত অবস্থায় পরে আছেন। এদিকে ট্রলারের থাকা ৬ জনের মধ্যে ৪ জনের সন্ধান পাওয়া গেলেও বাকি দুইজন মোঃ মিরাজ ও মোঃ কামাল নিখোঁজ রয়েছেন।

নিহত গিয়াস উদ্দিনের বাবা আঃ শুক্কুর জানান, ঘটনার পরপরই অজ্ঞাতনামা মোবাইল ফোনে তাকে ঘটনা সম্পর্কে জানালে তিনি ঘটনাস্থলে পৌছে মৃত গিয়াস উদ্দিনকে দেখতে পান। এছাড়া উদ্ধার হওয়া আহত তিনজনকে বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অপরদিকে তজুমদ্দিন কোস্টগার্ডের পেটি অফিসার মোঃ জসিম সাংবাদিকদের জানান, তাদের ডুবুরী দল নিখোঁজ মোঃ মিরাজ ও মোঃ কামালকে উদ্ধারের জন্য অনুসন্ধান চালাচ্ছেন। বোরহানউদ্দিন থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, মৃত গিয়াস উদ্দিনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় মৃত গিয়াস উদ্দিনের ভাই মোঃ জসিম বাদী হয়ে এম ভি ফারহান-৫ লঞ্চ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: