১৪ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ট্রাম্পের পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের ক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন


ট্রাম্পের পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের ক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন

অনলাইন ডেস্ক ॥ যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে ৪০ বছরের বেশি সময়ের মধ্যে এই প্রথম একজন মার্কিন প্রেসিডেন্টের পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের একক ক্ষমতার বিষয় নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার মার্কিন সিনেটের বৈদেশিক সম্পর্কবিষয়ক কমিটিতে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের নির্দেশে কর্তৃত্ব নিয়ে শুনানি হয়েছে। লক্ষ্য হচ্ছে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হুট করে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের নির্দেশ না দেওয়ার বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া।

১৯৭৬ সালের পর সিনেটে এই প্রথম এমন বিষয়ে শুনানি হলো।

উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের বিভিন্ন হুমকির প্রেক্ষাপটে উদ্বিগ্ন হয়েই এমন শুনানির আয়োজন বলে মনে করা হচ্ছে। পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারে প্রেসিডেন্টের যে নিজস্ব ক্ষমতা রয়েছে, বর্তমান প্রেসিডেন্টের ক্ষেত্রে কতটা নিরাপদ, তা নিয়ে আলোচনায় বসে মার্কিন কংগ্রেস। কংগ্রেসের সিনেট আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক কমিটির এই শুনানির শিরোনাম ছিল ‘পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করার এখতিয়ার’।

ক্যাপিটাল হিলে অনুষ্ঠিত শুনানিতে ডেমোক্র্যাট সদস্য ক্রিস মারফি বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর সিদ্ধান্ত নেওবার ক্ষেত্রে এতটাই অস্থির যে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারে মার্কিন নিরাপত্তা স্বার্থেরও ব্যত্যয় ঘটতে পারে।

শুনানিতে আইনজ্ঞ, রাষ্ট্রবিজ্ঞানী, সেনা কর্মকর্তা ও নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরাও তাঁদের মতামত দেন। ট্রাম্প দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো যেকোনো সময় পারমাণবিক মারণাস্ত্রের ব্যবহার শুরু করে দিতে পারেন—শুনানিতে এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন সিনেটের একাংশ। কয়েকজন সিনেটর মনে করেন, কোনো হস্তক্ষেপ ছাড়াই ট্রাম্পের এই অধিকার থাকা উচিত। জরুরি ক্ষেত্রে প্রেসিডেন্টের সিদ্ধান্ত নেওয়ার একক ক্ষমতা থাকার ওপরও মত দেন কেউ কেউ। তবে শুনানি শেষে পারমাণবিক অস্ত্রাগারগুলোর আধুনিকায়নে একমত হন সবাই।

গত আগস্টে পরপর কয়েকবার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন। তাঁকে থামাতে হুমকি দিতে থাকেন ট্রাম্প। জোর দিয়ে বলেন, এর জবাবে শিগগিরই এমন ব্যবস্থা নেওয়া হবে, যা বিশ্ব কখনোই দেখেনি। ট্রাম্প ও উনের পাল্টাপাল্টি হুমকিতেই উদ্বিগ্ন মার্কিন সিনেট কমিটি। গত অক্টোবরে ট্রাম্প ‘তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের পথে হাঁটছেন’—এমন মন্তব্য করেন আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান সিনেটর বব ক্রোকার। সূত্র: বিবিসি অনলাইন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: