১৪ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ডায়াবেটিস ৬৫ শতাংশ প্রতিরোধ যোগ্য


ডায়াবেটিস ৬৫ শতাংশ প্রতিরোধ যোগ্য

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ ডায়াবেটিস সারাজীবনের রোগ। এ রোগ সম্পূর্ণ নিরাময় হয় না, কিন্তু প্রতিরোধ সম্ভব। ডায়বেটিস আছে এমন রোগীদের ৫০ শতাংশই জানে না তাদের ডায়বেটিস আছে। এ কারণে দেশের সকল মানুষকে এ রোগ সম্পর্কে সচেতন করতে হবে। ডায়াবেটিস বহুলাংশেই (৬৫% পর্যন্ত) প্রতিরোধ যোগ্য।

আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে ‘বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০১৭’ উপলক্ষে বাংলাদেশ ডায়বেটিক সমিতি এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ খান। এছাড়া অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বারডেম হাসপাতালের মহাপরিচালক নাজমুন নাহার, সমিতির মহাসচিব মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, প্রকাশনা ও জনসংযোগ পরিচালক ফরিদ কবির প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২০১৫ সালের এক হিসেব অনুযায়ী বিশে^ ডায়াবেটিসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৪২ কোটি। এই অবস্থায় এই রোগের যদি প্রতিরোধ না করা হয় তাহলে ২০৪০ সাল নাগাদ আক্রান্তের সংখ্যা ৬৪ কোটিতে পৌঁছানোর আশঙ্কা রয়েছে।

আরও জানানো হয়, বাংলাদেশে শতকরা ২০জন মহিলা গর্ভকালীন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়। যেসব মায়ের গর্ভকালীন ডায়বেটিস হয় তাদের শিশুদেরও ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। এজন্য বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি ডায়াবেটিস প্রতিরোধে ‘গর্ভধারণ পূর্ব সেবা’ দিতে বিশেষ প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এর জন্য আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে সারা দেশে ৫০টি গর্ভধারণ পূর্ব সেবা কেন্দ্র চালু করা হয়েছে। সেখানে ১৪ নভেম্বর ২০১৭ হতে ১৪ এপ্রিল ২০১৮ পর্যন্ত বিনামূল্যে গর্ভকালীন ডায়াবেটিস পরীক্ষা করা হবে। সেখানে ৬০০ টাকায় গর্ভধারণ পূর্ব সেবা ১৪ নভেম্বর থেকে অব্যাহত থাকবে।

অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ খান জানান, গর্ভবতী মায়েদের অপুষ্টি থাকলে তাদের সন্তানদের ভবিষ্যতে ডায়াবেটিস হওয়ার বেশি ঝুঁকি রয়েছে। সে কারণে বিয়ের সময় মেয়েদের সচেতন করতে পারলে ডায়বেটিস প্রতিরোধে অনেক ভালো ফল পাওয়া যাবে। এর জন্য তারা ৪০০ কাজি ও ৩০০ চিকিৎসককে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন বলে জানান।

প্রতিবছর বাংরাদেশসহ প্রায় ১৭০টি দেশে এ দিবস পালিত হয়। বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে ডায়াবেটি সম্পর্কে গণসচেতনতা সৃষ্টিই বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসের প্রধান লক্ষ্য। এবারের প্রতিপাদ্য ’সকল গর্ভধারণ হোক পরিকল্পিত।’

বিশ্ব ডায়বেটিস দিবস ২০১৭ উপলক্ষে বাংলাদেশ ডায়বেটিক সমিতি দিনব্যাপী কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে সকাল সাড়ে আটটায় শাহবাগে র্যালী ও পদযাত্রা, বিনামূল্যে ডায়াবেটিস নির্ণয়, ফ্রি হার্ট ক্যাম্প, শিশু চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিত। এছাড়া সকাল সাড়ে ১০টায় বারডেম অডিটরিয়ামে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও রোগীদের আলোচনা ও প্রশ্ন উত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হবে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: