১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শেখ হাসিনা জঙ্গি, সন্ত্রাস ও দূর্নীতি দমন করেছেন ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী


শেখ হাসিনা জঙ্গি, সন্ত্রাস ও দূর্নীতি দমন করেছেন ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর ॥ আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি বলেছেন, দেশে উন্নয়নের ধারা সৃষ্টি হয়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্য হয়েছে। শেখ হাসিনা সাহস করে জঙ্গি, সন্ত্রাস ও দূর্নীতি দমন করেছেন। এ উন্নয়নের ধারাবাহিকতাকে বজায় রাখতে তাঁর নেতৃত্বে মহাজোট সরকার বারবার দরকার। জাসদসহ মহাজোটের ঐক্য অটুট থাকবে। তিনি বলেন, জোটে কোন ধরণের টানাপোড়েন সৃষ্টি হয়নি নাই।

রবিবার জেলার শিবচরে বিভিন্ন চিকিৎসা কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্তরস্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ নিয়ে বিএনপি মিথ্যাচার করছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, প্রধান বিচারপতি স্বেচ্ছায় ছুটি নিয়েছেন এবং তিনি স্বেচ্ছায় পদত্যাগও করেছেন। এতে সরকারের কোন চাপ কিংবা উৎসাহ ছিল না। বিএনপি মিথ্যাচারে অভ্যস্ত, এটা তাদের সংস্কৃতি, তাই বিচারপতির পদত্যাগ করা নিয়ে সর্বত্রই মিথ্যাচার করছে বিএনপি। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্তমান সরকারের অধীনে হবে উল্লেখ্য করে তিনি বলেন, নির্বাচনের মাঠে এসে বিএনপি প্রমাণ করুক তাদের জনপ্রিয়তা কতটুকু। আগামী নির্বাচনেও শেখ হাসিনা সরকারের বিজয় হবে বলেও মন্তব্য করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

রবিবার দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী শিবচরে সাবেক সংসদ সদস্য ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী দাদা ভাইয়ের কবর জিয়ারত করেন। পরে দত্তপাড়ায় চৌধুরী ফাতেমা বেগম মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র, ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের পাশে সন্নাসীর চরে ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী ট্রমা সেন্টার এবং শিবচর পৌরসভার বড়দোয়ালী এলাকায় শেখ হাসিনা ইনষ্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি‘ র ভিত্তি প্রস্তরস্থাপন করেন। এ সময় মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা ইনষ্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজিসহ এই তিনটি প্রকল্পে প্রায় ৬০ কোটি টাকা ব্যয় হবে। এর মধ্যে মেঘা প্রকল্প হিসেবে শেখ হাসিনা ইনষ্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজিতেই ব্যয় হবে প্রায় ৪০ কোটি টাকা। এছাড়া ১২ কোটি টাকা ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী ট্রমা সেন্টার এবং ১০ কোটি টাকা চৌধুরী ফাতেমা বেগম মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের জন্য ব্যয় করা হবে। এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন পার্লামেন্টারী পার্টির সেক্রেটারী ও অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত কমিটির সভাপতি নূর-ই- আলম চৌধুরী লিটন এমপি, জাসদের সমন্বয়ক শিরিন আক্তার এমপি, আরো উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মিয়াজ উদ্দিন খান, জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সরোয়ার হোসেন ।

বিকেলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তার, দলীয় নেতৃবৃন্দ, সুধী সমাজ ও বিভিন্ন দপ্তরের সরকারী কর্মকর্তা-কর্মাচারীদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় যোগ দেন। এ সময় তিনি ৫০ শয্যার শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেকে ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে রূপান্তর করার ঘোষণা দেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: