১৪ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নওগাঁয় সাবেক ৩ ইউপি চেয়ারম্যানের লোকজনের মাঝে সংঘর্ষ॥ আহত ২


নওগাঁয় সাবেক ৩ ইউপি চেয়ারম্যানের লোকজনের মাঝে সংঘর্ষ॥ আহত ২

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ ॥ নওগাঁর চকগৌরী হাটে মার্কেটের মুদি দোকানের সামনের ফুটপাতে চানাচুর ভাজা ও পিয়াজ-রসুনের দোকান বসাকে কেন্দ্র করে সাবেক তিন ইউপি চেয়ারম্যানের লোকজনের মাঝে সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে হাট ইজারাদারের আদায়কারীসহ আহত হয়েছে ২ জন । ঘটনার পর প্রতিপক্ষরা জোড় করে মার্কেটের দোকান বন্ধ করে দেয়ায় বর্তমানে উভয় পক্ষের লোকজনের মাঝে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

স্থানিয় সুত্র জানায়, গত হাটের দিন হাটের ভেতর সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন ও তার ভগ্নিপতি ইউপি সদস্য তজুর মার্কেটের ভারাটিয়া আলহাজ¦ ময়েন উদ্দীন সরদারের মেসার্স হাজী এন্ড সন্স নামক মুদিখানা দোকানের সামনে ফুটপাতে বসা ৩ টি চানাচুর ভাজা ও পিয়াজ রসুনের দোকানের মধ্যে একজন দোকানীকে তুলে দেন মার্কেটের দোকানী ময়েন উদ্দীন সরদার। এঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হাসান আলী মন্ডলের ভাতিজা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন বকুলের চাচাত ভাই হাট ইজারাদারের আদায়কারী রানু মুদি দোকানী ময়েন উদ্দীন সরদারকে চর-থাপ্পর মারে।

উল্লেখিত ঘটনার জেরধরে রবিবার হাটের দিন দুপুরে মার্কেটের মালিক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন ও তার ভগ্নিপতি ইউপি সদস্য তজুসহ তার লোকজনরা মার্কেটের সামনে চানাচুর ভাজা বিক্রেতা ইমদাদুল ও পিয়াজ রসুনের দোকান বসতে বাধা দেন। বাধা দেয়ার খবর পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হাসান আলী মন্ডলের ভাতিজা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন বকুলের চাচাত ভাই হাট ইজারাদারের আদায়কারী রানু দলবল নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে জোর পূর্বক দোকানের সামনে দোকান বসানোর চেষ্টা করলে এসময় দু’পক্ষের লোকজনের মাঝে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে হাটের খাজনা আদায়কারী সুহেল রানা (২৮) ও ভীমপুর ইউনিয়ন ৯ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সদস্য আশিফ ইকবাল (২৮) মারান্তক জখম হয়। ঘটনার সংবাদ পেয়ে নওহাটা ফাঁড়ি পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি শান্ত করেন। অপরদিকে রক্তাক্ত আহত সুহেল রানা ও আশিফ ইকবাল কে উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে হাট ইজারাদার জানিয়েছে। রানু ও তার লোকজন মার্কেটের দোকান-পাট জোড় করে বন্ধ করে দিয়ে সামনে চানাচুর ভাজা ও আদা-রসুনের দোকান বসিয়ে দিয়েছে। ঘটনায় দু’পক্ষের লোকজনের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। উভয় পক্ষই যুদ্ধং দেহী অবস্থায় রয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: