১২ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দুবাইয়ে ধোনির ক্রিকেট অ্যাকাডেমির উদ্বোধন


দুবাইয়ে ধোনির ক্রিকেট অ্যাকাডেমির উদ্বোধন

অনলাইন ডেস্ক ॥ মহেন্দ্র সিংহ ধোনি তাঁর প্রথম অ্যাকাডেমি খুলে ফেললেন। আর সেই অ্যাকাডেমি খুললেন ভারতের বাইরে। দুবাইয়ে হওয়া সেই ক্রিকেট প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে যদিও ভারত থেকে কোচ আনা হবে বলে জানানো হয়েছে। শনিবার স্বয়ং ধোনি দুবাইয়ের প্রচুর উৎসাহী শিক্ষার্থীর সামনে উদ্বোধন করলেন তাঁর নামাঙ্কিত অ্যাকাডেমির।

অনুষ্ঠানের মাঝেই আবার ঘুরে ফিরে এল সেই প্রসঙ্গ। ধোনির কি টি-টোয়েন্টি থেকে সরে দাঁড়ানো উচিত? অজিত আগরকরের মতো ক্রিকেটাররাও এই নিয়ে ধোনির বিপক্ষে মুখ খুলেছেন। যা নিয়ে ধোনি শনিবার বলেন, ‘‘সবার নিজস্ব মতামত আছে। আমার কিছু বলার নেই।’’ ধোনি আরও জানিয়েছেন, অর্থের জন্য তিনি এই ক্রিকেট স্কুল খুলছেন না।

চারটি টার্ফ, তিনটি সিমেন্টের, তিনটি ম্যাটিং পিচ থাকছে দুবাইয়ে ধোনির ক্রিকেটার তৈরির কারখানায়। পেস ও স্পিন বোলিং মেশিনে অনুশীলন করতে পারবে ছেলেরা, বলে জানানো হল। আর অভিনব ব্যাপার হচ্ছে, নৈশালোকেও অনুশীলনের ব্যবস্থা থাকছে। অ্যাকাডেমির মধ্যেই নানা ক্রিকেট সরঞ্জাম কেনার ব্যবস্থাও থাকছে। ধোনি বললেন, ‘‘আমি খুব খুশি এ রকম একটা প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে। নিজের সেরা অবদানটাই রাখার চেষ্টা করব। এখানে শিক্ষার্থীদের উৎসাহ দেখে আমি খুবই প্রভাবিত। এটাই আমাকে ভাল কিছু করার ব্যাপারে উদ্বুদ্ধ করছে।’’

কেন এই স্কুল খুলছেন, সে প্রশ্নের জবাবে ধোনি আরও বলেন, ‘‘আর্থিক লাভের কথা ভেবে খুলিনি। খুলেছি খেলা এবং বাচ্চাদের প্রতি আমার ভালবাসা থেকে। বাচ্চাদের খেলা শেখানোর সেরা জায়গা হল স্কুল। সোশ্যাল মিডিয়ায় মজে থাকায় এখন অনেকেই খেলার মাঠে আসতে চায় না। এতে ওদের স্বাস্থ্যের সমস্যা হচ্ছে।’’ শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ চলাকালীন তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে থাকবেন। যা নিয়ে ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক বলেন, ‘‘আমি এখন অনেকটা সময় রাজ্য দলের সঙ্গেই কাটাব।’’

ধোনি সমালোচনা যেমন উড়িয়ে দিচ্ছেন, তেমন পাশেও পাচ্ছেন কাউকে কাউকে। যেমন অধিনায়ক কোহালি এবং কোচ রবি শাস্ত্রী। তাঁরা দু’জনেই আগ্রাসী ভঙ্গিতে ধোনির পাশে দাঁড়িয়েছেন। কোহালি বলেছেন, ধোনিকে অহেতুক আক্রমণ করা হচ্ছে। আর শাস্ত্রী তুলোধনা করেছেন সমালোচকদের। বলেছেন, ‘‘দেখে মনে হচ্ছে, ঈর্ষান্বিত কিছু ব্যক্তি ধোনির পতন দেখার জন্য বসে রয়েছে। অপেক্ষায় রয়েছে কবে ধোনির একটা-দু’টো খারাপ ম্যাচ যাবে।’’ শাস্ত্রী আরও বলেন, ‘‘আমিও টিভি-তে কাজ করেছি। ওখানে প্রশ্ন করা হয়, উত্তরও দিতে হয়। টিভি-তে শো-টা চালাতে হবে তো।’’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: