২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ফরিদপুরে দুই সহোদরকে কুপিয়ে হত্যা ॥ আটক ৫


নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর ও সংবাদদাতা, বোয়ালমারী, ১০ নবেম্বর ॥ পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা আপন দুই ভাইকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে আলফাডাঙ্গা পৌরসভার শ্মশানঘাট এলাকায় বারাশিয়া নদীর পারে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো পাশের বোয়ালমারী উপজেলার শেখর ইউনিয়নের মাগুরা ছত্রকান্দা গ্রামের মৃত জহুর মোল্লার পুত্র ইদ্রিস মোল্লা (৪৮) ও লাভলু মোল্লা লাভু (৪২)।

নিহত দুই ভাই আলফাডাঙ্গা বাজারে ব্যবসা করেন। এদের মধ্যে ইদ্রিস বোয়ালমারীর শেখর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও আলফাডাঙ্গা সদর বাজার বণিক সমিতির সহ-সভাপতি। সে বাজারে কাপড়ের ব্যবসা করত। তার ছোট ভাই লাভু উপজেলা যুবলীগ নেতা। সে বাজারে আসবাবপত্রের ব্যবসা করত।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে আলফাডাঙ্গা বাজারের নিজেদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দুই ভাই ইদ্রিস ও লাভলু মোল্লা একই সঙ্গে একটা রিক্সা ভ্যানযোগে বাড়ির দিকে রওনা হন। রাত সাড়ে ৮টার দিকে বারাসিয়া নদীর পাশের শ্মশানঘাট এলাকায় পৌঁছলে আগে থেকে ওঁৎপেতে থাকা মুখোশধারি ১২-১৪ জন দুর্বৃত্ত প্রথমে লাঠি দিয়ে ভ্যানচালক মোঃ হাসানকে যানটি থেকে ফেলে দেয়। এরপর দুই ভাই ইদ্রিস ও লাভলুকে রামদা দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা দুই ভাইকে উদ্ধার করে আলফাডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর চিকিৎসকের পরামর্শে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে রাত ১২টার দিকে তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতদের ভাই আবুল কাসেম মোল্লা জানান, আগে থেকেই একই এলাকার বাসিন্দা শেখর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য কওসার শেখের সঙ্গে আমাদের বিরোধ চলে আসছিল। বৃহস্পতিবার রাতে আলফাডাঙ্গা বাজারে ব্যবসায়িক কাজ শেষ করে বাড়ি ফেরার সময় কাওসার মোল্লার লোকজন হামলা চালিয়ে আমার দুই ভাইকে খুন করে।

এলাকার কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, শেখর ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা ইস্রাফিল মোল্লা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালামের সমর্থকদের মধ্যে বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে। নিহতরা বর্তমান চেয়ারম্যানের সমর্থক আর কাওসার মোল্লা সাবেক চেয়ারম্যানের সমর্থক। বেশ কিছুদিন আগে কাওসার মোল্লার এক সমর্থককে প্রতিপক্ষরা কুপিয়ে জখম করেছিল।

ঘটনার পরে পুলিশ মাগুরা ছত্রকান্দা গ্রাম থেকে ঘটনার জড়িত সন্দেহে তোতা মিয়া (৫০), শহীদ আলী (২০), হারুন মোল্লা (৫০), দীন ইসলাম (২০) ও মহিদুল ইসলাম (১৮) নামে ৫ জনকে আটক করেছে।

আলফাডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক নাজমুল হাসান বলেন, দুই ভাইয়ের পায়ে, হাতে, বুকে ও মুখে ধারাল অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।

বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, পূর্বশত্রুতার জের ধরে ওই দুই ভাইকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় ওই দুই ভাইয়ের বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আলফাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ নাজমুল করিম জানান, লাশ দুটি ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: