১৭ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রংপুর-রাজশাহী ম্যাচ দিয়ে ঢাকাপর্ব শুরু আজ


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল টি২০) পঞ্চম আসরের প্রথমপর্ব শেষ হয়ে গেছে। সিলেটে হয়েছে প্রথমপর্ব। এবার ঢাকায় দ্বিতীয়পর্ব শুরু হবে। আজ ঢাকার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে রংপুর রাইডার্স ও রাজশাহী কিংসের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে দ্বিতীয়পর্ব শুরু হবে। দুপুর ১টায় এই দুই দল মুখোমুখি হবে। একইদিন সন্ধ্যা ৬টায় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়নামাইটস ও নবাগত সিলেট সিক্সার্স লড়াই করবে।

সিলেটপর্বে ৮টি ম্যাচ হয়েছে। এবার ঢাকাপর্বে ২১ নবেম্বর পর্যন্ত ১৬টি ম্যাচ হবে। প্রতিদিন দুটি করে ম্যাচ হবে। টানা দুইদিন খেলা হওয়ার পর একদিন করে বিরতি থাকবে। ১৩, ১৬ ও ১৯ নবেম্বর বিরতি থাকবে। বাকি ৮দিনে হবে ১৬টি ম্যাচ। এ পর্বে স্বাগতিক দল হচ্ছে ঢাকা। সিলেটে যেমন সিলেট সিক্সার্স স্বাগতিক দল ছিল। প্রতিটি দল দুটি করে ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলেও সিলেট ৪টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছে। এবার ঢাকা সবচেয়ে বেশি ৬টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। বাকি দলগুলোর মধ্যে রাজশাহী কিংস ৫টি ও খুলনা টাইটান্সও সমান সংখ্যক ম্যাচ, চিটাগং ভাইকিংস, রংপুর রাইডার্স, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও সিলেট সিক্সার্স ৪টি করে ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে।

চিটাগং ভাইকিংসের নিজের মাটিতে খেলার সুযোগ রয়েছে। লীগের তৃতীয়পর্ব হবে চট্টগ্রামে। তখন চিটাগং বেশি সংখ্যক ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। বাকি দলগুলো নিজের মাটিতে খেলার সুযোগ পাচ্ছে না। ধীরে ধীরে বিপিএলের ম্যাচগুলো ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। প্রথম চার আসর যেখানে দুই ভেন্যুতে (ঢাকা ও চট্টগ্রামে) হয়েছে, সেখানে এবার বিপিএল তিন ভেন্যুতে হচ্ছে। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম নতুন যোগ হয়েছে। ধীরে ধীরে প্রতিটি দলকেই নিজেদের হোমে খেলার সুযোগ করে দেয়া হবে।

হোমে খেলার সুবিধা যে অনেক, তাতো বুঝিয়ে দিয়েছে সিলেট সিক্সার্স। সাদা-মাটা দল নিয়েই দলটি সিলেটে টানা তিন ম্যাচে জিতেছে। চতুর্থ ম্যাচে গিয়ে না হারলে টানা চার জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তো সিলেট। দলটি ঢাকায় ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে খেলতে নামার আগে পয়েন্ট তালিকায় সবার ওপরেই (তিন ম্যাচ জয়ে ৬ পয়েন্ট) থাকছে। সেখানে সিলেটে দুই ম্যাচ খেলে একটিতে জিতেছে ঢাকা ডায়নামাইটস। ঢাকার মতো রংপুর রাইডার্সও সিলেটে একটি ম্যাচ জিতেছে। কিন্তু রাজশাহী কিংস দলটি শূন্য হাতেই সিলেট থেকে ফিরেছে। এবার ঢাকায় দলটি ঝলক দেখাতে চায়।

সিলেট যেখানে চার ম্যাচে তিন জয় নিয়ে ঢাকায় খেলা শুরু করছে, সেখানে ঢাকা, কুমিল্লা, রংপুর, চিটাগং ও খুলনা একটি করে জয় নিয়ে ঢাকাপর্বে খেলতে নামবে। রাজশাহী শুধু কোন ম্যাচ না জিতে ঢাকাপর্বে খেলা শুরু করছে।

আজ দিনের প্রথম ম্যাচে রাজশাহী ও রংপুর লড়াই করবে। সিলেটে প্রথমদিনের খেলায় এই দুই দল দ্বিতীয় ম্যাচে লড়াই করেছিল। এবার প্রথম ম্যাচে লড়াই করবে। আর ঢাকা ও সিলেট প্রথম ম্যাচে লড়াই করেছিল। এবার দ্বিতীয় ম্যাচে লড়াই করবে। এই দুটি ম্যাচ দিয়ে যেন ফিরতি লীগও দ্রুতই শুরু হয়ে যাচ্ছে এবার।

সিলেটে রাজশাহী দুই ম্যাচের একটিতেও জিততে পারেনি। রংপুর ও সিলেটের কাছে হেরেছে। রাজশাহীর জন্য ম্যাচটি প্রতিশোধের ম্যাচও বলা চলে। সিলেটে রংপুরের বিপক্ষে ১৫৪ রান করেও জিততে পারেনি রাজশাহী। সহজ জয়ই পেয়েছে রংপুর। আজও কী তেমনই হবে?

দুই দলের তুলনায় রংপুর অনেক শক্তিশালী দল। দলটি এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই দল গড়েছে। এখনও দলের দুই সেরা ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল ও ব্রেন্ডন ম্যাককালাম দলের সঙ্গে যোগ দেননি। তবে যখন যোগ দেবেন তখন আরও শক্তিশালী হয়ে যাবে রংপুর। এর আগেও দলটি শক্তিশালীই। তাই রাজশাহী আজও বিপাকে পড়তে পারে। তবে রাজশাহীর যদি মুস্তাফিজুর রহমান খেলে ফেলেন আজ তাহলে রংপুরকে বিপদে পড়তে হতে পারে। তবে চিটাগংয়ের কাছে যে রংপুর হেরেছে সেই ম্যাচ থেকে রংপুরের দুর্বলতা ধরতে পারলে জয় রাজশাহীর হাতেও ধরা দিতে পারে।

সিলেটে সিলেট প্রথম ম্যাচেই ঢাকাকে হারিয়ে দিয়েছিল। এরপর সিলেট জিততেই থাকে। কুমিল্লা, রাজশাহীকে হারায়। খুলনার কাছে গিয়ে সিলেটপর্বের শেষ ম্যাচে ধরাশায়ী হয়। যা বোঝা গেছে, সিলেটের দুই ওপেনারই ভরসা। উপুল থারাঙ্গা ও আন্দ্রে ফ্লেচার যদি শুরুতেই ঝলক দেখান, যে কোন দল হারতে পারে। আর এ দুই ওপেনার যদি কিছু করে দেখাতে না পারেন তাহলে সিলেটকে হারানো যেন সহজ। তা বুঝিয়ে দিয়েছে খুলনা। এখন ঢাকা যদি প্রতিশোধ নিতে চায় তাহলে খুলনার ম্যাচে সিলেটের বিপত্তি থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যেতে পারে। প্রথম ম্যাচে হারের পর বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা যেভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে, খুলনাকে হারিয়েছে; তাতে ঘরের মাঠে খেলার সুযোগ পেয়ে সিলেটকেও ধসে দিতে পারে। দলটি আবার শক্তিশালীও। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতো দলই। সিলেটের সামনে এবার তাহলে আছে বিপদ। লীগ চলবে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এর আগে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে লীগপর্বের খেলা। সাতদলের লীগে প্রতিটি দল ১২টি করে ম্যাচ খেলবে। এখনও ভাল অবস্থান কিংবা খারাপ অবস্থান হওয়ার অনেক সময় আছে। সিলেটপর্ব শেষ হয়ে ঢাকাপর্ব শুরু হচ্ছে। এরপর চট্টগ্রামপর্ব হবে। তারপর আবার ঢাকায় ফিরে আসবে বিপিএল। শেষপর্ব ঢাকাতেই হবে। ঢাকায় হবে দুটি পর্ব। এর মধ্যে ঢাকার একটিপর্ব, বিপিএলের দ্বিতীয়পর্ব আজ শুরু হচ্ছে। রংপুর ও রাজশাহীর মধ্যকার ম্যাচ দিয়েই আজ এ পর্ব শুরু হচ্ছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: