১৫ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সরকারের কাছে রাজনৈতিক আচরণ প্রত্যাশা করছে বিএনপি: মির্জা আব্বাস


সরকারের কাছে রাজনৈতিক আচরণ প্রত্যাশা করছে বিএনপি: মির্জা আব্বাস

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রবিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির সমাবেশ। ‘বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষে এ সমাবেশ করবে বিএনপি। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। ইতিমধ্যেই সমাবেশ করার অনুমতি পেয়েছে বিএনপি। এদিকে শুক্রবার বিকেলে সমাবেশস্থল সোহরাওয়ার্দী উদ্যান পরিদর্শনে গিয়ে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, সরকারের কাছে বিএনপি রাজনৈতিক আচরণ প্রত্যাশা করছে।

মির্জা আব্বাস বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশ করতে আমরা সরকারের কাছে সহযোগিতা কামনা করব। তারা যেন কোনোরকমের উসকানিমূলক কার্যক্রম না করেন। আমাদের যেন সহযোগিতা করেন। আমরা সরকারের কাছ থেকে রাজনৈতিক আচরণ আশা করব। একই সঙ্গে আমরা অন্যান্য রাজনৈতিক দলসহ সবার সহযোগিতা চাইব। যাতে জনগণের মতামত আমরা নিঃসংকোচে প্রকাশ করতে পারি।

মির্জা আব্বাস বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশ নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের দেয়া বক্তব্য উস্কানির ইঙ্গিত বহন করে। ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেছেন, বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেয়া হয়েছে, তবে বিশৃংখলা হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ব্যাপারে আমি বলতে চাই, বিএনপি কখনো উশৃংখল দল নয়, অন্তত আওয়ামী লীগের মতো। একটা সুশৃংখল দল হলো বিএনপি।

রিজভী বলেন- ওবায়দুল কাদের ওনাদের মনের ভেতরে কী আছে তা প্রকাশ করে দিলেন। ওনার কথাটা আমাদেও কাছে ইঙ্গিতময় মনে হলো। আমরা স্পষ্ট করতে বলতে চাই, এ সমাবেশে সরকারের সহযোগিতা চাইব। সরকার কোনো রকম প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না করলে ব্যাপক লোকসমাগম ঘটবে।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশস্থল পরিদর্শনকালে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল।

জনসভাস্থল পরিদর্শনের পর বিএনপি নেতারা নয়া পল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যান। সেখানে তারা বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে সমাবেশ সফল করার ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: