১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ক্যাজুয়াল প্রিন্টেড শার্ট


সকাল-সন্ধ্যায় উত্তরের ঠাণ্ডা বাতাস বইতে শুরু করেছে। এ শীতের আগমনী বার্তা। এ সময়ের আবহাওয়া অনেকটাই টালমাটাল। সকালের বাতাসটা স্বস্তির হলেও দুপুরে রোদের প্রখরতাও কম না। এজন্য আপনার পোশাকেও দরকার ভিন্নতা। প্রয়োজন আরামদায়ক কোন পোশাক। ঠিক এ সময় চাই ক্যাজুয়াল প্রিন্টেড শার্ট। কারণ এতে ফ্যাশনটাকেও ধরে রাখা যাচ্ছে আর সঙ্গে ক্যাজুয়াল লুকটাও ফুটে উঠছে সুন্দরভাবে। তাই সাদ ও সাধ্যের মধ্যে ক্যাজুয়াল শার্টকে সময় উপযোগী পোশাক হিসেবে ধরলেও ভুল হয় না। সব সময় ফরমাল লুকে থাকাটা অনেকের কাছে বেশ কষ্টসাধ্য। আবার অনেক জায়গা আছে, সেখানে প্রয়োজন একটা ক্যাজুয়াল লুক, আবার অনেক জায়গায় টি-শার্টও পরা যায় না, সেসব জায়গার জন্য অনেকের কাছে ক্যাজুয়াল শার্টই সবচেয়ে উপযোগী।

তরুণদের পাশাপাশি তরুণীরাও আজকাল পরছে ক্যাজুয়াল শার্ট। বাজারে যেসব শার্ট বিক্রি হচ্ছে সেগুলোর কাটিং ও ডিজাইনে রয়েছে ভিন্নতা। সুতি, মিক্সড কটন, খাদি, লিনেন, ভয়েল, রেনন ইত্যাদি কাপড়ের হাফ শার্ট এই গরমের জন্য বেশি উপযোগী। যেগুলোতে দেখা যায় ডিজাইনের রকমফের। আবহাওয়ার পরিবর্তনে তরুণরা এখন আবার তাদের ফ্যাশন স্টেটমেন্টে ক্যাজুয়াল শার্টকে প্রাধান্য দিচ্ছে। একরঙা শার্টের চেয়ে বিভিন্ন ধরনের প্রিন্টেড শার্টের চাহিদা বেশি। রয়েছে চেক বা স্ট্রাইপ শার্ট। বর্তমান সময়ের শার্টগুলোর কলার এবং বাটন লাইনে বেশ কিছু পরিবর্তন দেখা যায়। একটা সময় ছিল যখন বাটন লাইন হতো কন্ট্রাস্ট কালারের।

বিভিন্ন বাজার ও ফ্যাশন হাউস ঘুরে দেখা যায়, এখন ক্যাজুয়াল শার্টই বেশি বিক্রি হচ্ছে। তবে আজকাল স্লিম ফিটেড ক্যাজুয়াল শার্টই বেশি পচ্ছন্দ সবার। কেউ ঢোলা শার্ট কিনলেও পরে দর্জির কাছ থেকে আলাদাভাবে বডি ফিটিং করে শার্ট পরছে। আগে ফুলহাতা শার্ট গুটিয়ে পরার প্রচলন বেশি ছিল। এখন হাফ শার্টের হাতাও গুটিয়ে পরার ফ্যাশন চলছে ট্রেন্ডে। যা ফ্যাশন ট্রেন্ডে যোগ করেছে আলাদা মাত্রা। তবে যারা একটু স্থূলকায়, তাদের একটু ঢোলা শার্টেই বেশি মানানসই লাগবে। গরমের কারণে সবার পচ্ছন্দের শীর্ষে আছে হালকা রঙের ক্যাজুয়াল শার্ট। কালো এবং ডার্ক কালারের শার্ট কমই পরছে সবাই। আর এসব শার্টের বোতামের ব্যবহারেও ভিন্নতা চান অনেকেই। তারা কাঠের বোতাম আর প্লাস্টিকের রঙিন বোতাম বেশি পছন্দ করছেন।

আর এসব ক্যাজুয়াল শার্টের কলারের ব্যবহারেও রয়েছে ভিন্নতা। আগেকার বড় কলারের শার্ট হয়েছে এখন ছোট কলার। গরমে অনেকেই পাতলা ও ছোট কলারওয়ালা শার্ট বেশি পরছে। আর প্রিন্টেড বিভিন্ন রংচঙা শার্টের বিক্রিও বেশি। তবে চেক এবং স্ট্রাইপ শার্টের কদর এখনও আগের মতোই আছে। তবে স্ট্রাইপ শার্ট কিনলে নজর দিতে হবে সেলাইয়ের ওপর। কারণ স্ট্রাইপের সেলাইতে স্ট্রাইপ না মিললে সেটা দেখতে বেমানান লাগে। তাই স্ট্রাইপ মেলানো শার্ট কেনা উচিত।

কোথায় পাবেন : নগরীর বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে পাবেন নানারকম বাহারি সব হাফ শার্ট। ইয়েলো, সেইলর, সাদাকালো, আড়ং, ইজি, টুয়েলভ, ঢাকা রিপাবলিকসহ বিভিন্ন নামীদামী ফ্যাশন হাউসের আউটলেটে পাবেন হরেক ডিজাইনের হাফ শার্ট। এ ছাড়া নগরীর ধানমন্ডি হকার্স মার্কেট, ঢাকা কলেজের সামনে, নুরজাহান মার্কেট, ফার্মগেট, মহাখালীসহ বিভিন্ন স্থানে পেতে পারেন কম দামে আপনার পছন্দের আরামদায়ক ক্যাজুয়াল শার্ট।

ফ্যাশন ডেস্ক

মডেল : সঞ্জীব, ছবি : রিয়াজ রহমান