১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গসিপ


ঘড়ির কাঁটার সঙ্গে সঙ্গে সময় বয়ে যায়। এই নগর জীবনে ব্যস্ততার মাঝে আমরা অনেকেই চোখ তাকাতে পারি না বিনোদন ভুবনে। কিন্তু বিনোদন ভুবনে প্রতিদিন ঘটে যাচ্ছে এক একটি নতুন ঘটনা। এ সব নিয়েই আমাদের আজকের আয়োজন। লিখেছেন- ধ্রুব হাসান

বোনের বিয়েতে কানাডায় সানি

বোনের বিয়ে। আর সেখানে তাঁর সবচেয়ে প্রিয় দিদি থাকবেন না তাও আবার হয় নাকি! দিদি অর্থাৎ সানি লিওন। কেরিয়ার নিয়ে এই মুহূর্তে ব্যস্ত তিনি। তবুও কাজিনের বিয়েতে হাজির থাকতে তিনি গিয়েছেন কানাডায়। আর সেখান থেকেই বিয়েবাড়ির বিভিন্ন মুহূর্তের আপডেট দিচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। কখনও ছবি শেয়ার করছেন, কখনও বা ভিডিও। কানাডায় যাওয়ার আগে সংবাদ সংস্থা আইএএনএসের মুখোমুখি হয়েছিলেন সানি। তিনি বলেন, ‘শৈশবে আমি আমার চাচা-চাচির সঙ্গে খুবই ঘনিষ্ঠ ছিলাম। একসঙ্গে খুব ভাল সময় কাটিয়েছি আমরা। এখন বোনের বিয়ে। আমি সেখানে না গিয়ে থাকতেই পারব না। এটি তাঁর জন্য চমকপ্রদ হবে এবং আমি তাঁর প্রতিক্রিয়া দেখার জন্য উন্মুখ হয়ে আছি।’ ডিজাইনার অর্চনা কোছারের দুটি বিশেষ পোশাক এই অনুষ্ঠানের জন্য বেছে নিয়েছেন সানি। সেই পোশাক পরে ওয়েব দুনিয়ায় ছবিও দিয়েছেন তিনি। কানাডা যাওয়ার আগে সংবাদ সংস্থাকে সানি বলেন, ‘আমি যখন ছোট ছিলাম, আমার এই কাকা আর বোনের সঙ্গে খুব ঘনিষ্ঠ ছিলাম। আমি খুব ভাল সময় কাটিয়েছি ওদের সঙ্গে। এ বার ওর বিয়ে। এই অনুষ্ঠানটা একেবারেই মিস করতে পারব না। বোনের বিয়েতে অংশ নিতে কানাডায় একাই গিয়েছেন সানি লিওন। মেয়েকে নিয়ে তাঁর স্বামী ড্যানিয়েল ওয়েবার মুম্বাইয়ে আছেন। সম্প্রতি সানি অভিনীত ‘তেরা ইন্তেজার’ নামের একটি চলচ্চিত্র মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। ওই চলচ্চিত্রে আরও অভিনয় করেছেন আরবাজ খান।

বরখাস্ত কেভিন স্পেসি

হলিউড এখন তারকাদের যৌন কেলেঙ্কারির বিতর্কে উত্তপ্ত। ভুক্তভোগীরা আগের চেয়ে অনেক বেশি সোচ্চার ও প্রতিবাদী। বাকিরাও সচেতন। যৌন হেনস্থার অভিযোগ ওঠায় সম্প্রতি ভিডিও স্ট্রিমিং নেটওয়ার্ক নেটফ্লিক্সে প্রচারিত ‘হাউস অব কার্ড’ সিরিজ থেকে অভিনেতা কেভিন স্পেসিকে বাদ দেয়া হয়েছে। তা ছাড়া এ তারকা অভিনীত সিনেমাও নেটফ্লিক্সে মুক্তি না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ‘গোর’ নামের ওই ছবির শূটিং শেষ। এখন নির্মাণ-পরবর্তী কাজ চলছে। ১৯৮০-এর দশকে তিনি চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় শুরু“ করেন কেভিন। ১৯৯০-এর দশকে তিনি জনপ্রিয়তা ও সমালোচকদের প্রশংসা অর্জন করেন অপরাধ-নাট্যধর্মী দ্য ইউজুযাল সাসপেক্ট্স (১৯৯৫) চলচ্চিত্রে অভিনযরে মধ্য দিয়ে। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৯৯ সালে মধ্যবয়সী সঙ্কটপূর্ণ নাট্য চলচ্চিত্র আমেরিকান বিউটি-এ অভিনয় করে তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন। ‘হাউস অব কার্ড’ সিরিজে কেভিন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ফ্র্যাংক আন্ডারউডের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। কেভিনের বিরদ্ধে একের পর এক যৌন হয়রানির খবর প্রকাশিত হওয়ার পর নেটফ্লিক্স কর্তৃপক্ষ গত মঙ্গলবার তাঁকে বরখাস্ত করেছে। তাদের মতে, কেভিন পুরো প্রোডাকশনকেই বিষাক্ত করে তুলেছে। ভবিষ্যতেও নেটফ্লিক্সের কোনো প্রোডাকশনে এই তারকাকে না নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে তারা। ১৯৮৬ সালে ১৪ বছর বয়সী ‘স্টার ট্রেক: ডিসকভারি’ সিনেমার শিশু তারকা এ্যান্থনি র্যা পকে পার্টিতে ডেকে যৌন নির্যাতন করেছিলেন কেভিন স্পেসি। এ অভিযোগ ওঠার পর অবশ্য ক্ষমা চেয়েছেন কেভিন। এরপর আরও তিনজন পুরুষ এই তারকার নামে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন। কেভিনের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ করেছেন মার্কিন চলচ্চিত্র পরিচালক টনি মন্টানা।

জেনিফার লরেন্স

জেনিফার লরেন্স সেই অভিনেত্রী যিনি কিছুদিন আগে পুরুষ অভিনেতাদের তুলনায় নারীরা কেন কম পারিশ্রমিক পান তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। কিছুদিন আগেও তিনি নিতেন ৩ হাজার ডলার কিন্তু এখন নিচ্ছেন কোটিতে। খ্যাত ফোর্বস ম্যাগাজিনের তালিকায় হলিউডের সবচেয়ে লাভজনক তারকা এখন জেনিফার লরেন্স। অস্কারজয়ী অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্স সাধারণ জীবনযাপনেই অভ্যস্ত ছিলেন। কিন্তু হলিউডের ঝকমকে দুনিয়ার বাসিন্দা হয়ে কি সাদামাটা থাকা যায়? ২০১৪ সালে মুক্তি পেয়েছে লরেন্সের ‘দ্য হাঙ্গার গেমস: মকিংজে পার্ট ওয়ান’ এবং ‘এক্স-মেন: ডেজ অব ফিউচার পাস্ট’। এগুলো বিশ্বব্যাপী আয় করেছে ১০০ কোটি ৪০ লাখ মার্কিন ডলার। আর এতগুলো ঘটনার কেন্দ্রে ছিলেন বলেই ২০১৪-তে তার নাম করে গুগল-এ সার্চ হয়েছে সবচেয়ে বেশি। ২০১৪ সালে ৮ মিলিয়ন ডলার দিয়ে বিশাল এক বাড়ি কিনেছিলেন তিনি। ভোগ সাময়িকী জানিয়েছে, প্রাসাদসম ওই বাড়িতে আছে বিশাল আকৃতির পাঁচটি শোবার ঘর, শরীরচর্চার একটি বড় জায়গা, থিয়েটার ও সাজঘর। বাড়িটির রান্নাঘর ও স্নানঘরও নাকি দেখার মতো। মজার কথা হচ্ছে, যে খাটটিতে জেনিফার ঘুমান, সেটির দাম নাকি ৯ মিলিয়ন বা ৯০ লাখ ডলার। মানে প্রায় ৭৫ কোটি টাকা! এই জনপ্রিয় তারকার অভিনীত প্রথম ভৌতিক ছবি ‘মাদার’ মুক্তি পেয়েছে গত সেপ্টেম্বরে। মাদার! ছবিতে স্বামীর সঙ্গে শখের বাড়িতে সংসার শুরু করেন জেনিফার। কিছুদিন যেতে না যেতেই রহস্য জেনিফারের চারদিক ঘিরে ফেলে। অপরিচিত কোন কিছুর আনাগোনা শুরু হয় বাড়িতে। দেখা দেয় ভৌতিক যত সব কা । ছবির আবহ-শব্দ ভয় যেন আরো বাড়িয়ে দেয়। সবকিছুর জন্য স্বামীকে সন্দেহ করতেও ছাড়েন না জেনিফার। হাঙ্গার গেমস তারকা লরেন্সের স্বামীর চরিত্রে ছবিতে দেখা যাবে জ্যাভিয়ার বারডেমকে। রিক্যুয়েম ফর আ ড্রিম ও ব্ল্যাক সোয়ানখ্যাত পরিচালক ড্যারেন এ্যারনোফস্কি পরিচালনা করেছেন মাদার! ছবিটি।

ওয়ার্ড্রোব ম্যালফাংশনের শিকার হলেন ব্রিটনি

ওয়ার্ড্রোব ম্যালফাংশনের শিকার হলেন মার্কিন গায়িকা ব্রিটনি স্পিয়ার্স। মিররের খবর অনুযায়ী, গত ১ নবেম্বর লাস ভেগাসে অনুষ্ঠান চলাকালীন এ ঘটনাটি ঘটে। লাস ভেগাসের ওই অনুষ্ঠানে কালো রঙের একটি পোশাক পরেছিলেন ব্রিটনি। পারফর্ম করার সময় শরীরের একটি বিশেষ অংশ থেকে তার পোশাক সরে যায়। সেই ছবি ছডেিয় পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যদিও এ নিয়ে এখনও পর্যন্ত প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি ব্রিটনি। তবে এটা প্রথমবার নয়। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতেই একই রকম ঘটনা ঘটেছিল ব্রিটনির সঙ্গে। সে বারও প্রকাশ্যে এ নিয়ে মন্তব্য করতে চাননি তিনি। ব্রিটনি ছাডাও অনেক সেলেব এ ধরনের সমস্যায় পড়েছেন একাধিকবার। যদিও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সেলেব মহলের একটা বড় অংশের মতে, ব্রিটনি ইচ্ছা করেই নাকি কা ঘটিয়েছেন। আবার একটা অংশের মতে, ব্রিটনি জনপ্রিয়তা নিয়ে কোনও প্রশ্ন নেই। ফলে শিরোনামে আসার জন্য এমন কাজ তিনি করবেন না। যদিও আসল সত্যিটা কী, তা জানা যায়নি।