১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ঠাকুরগাঁওয়ে শিক্ষিকা নির্যাতনে বিচারের দাবিতে মানববন্ধন


ঠাকুরগাঁওয়ে শিক্ষিকা নির্যাতনে বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও ॥ ঠাকুরগাঁওয়ের এক মুক্তিযোদ্ধার স্কুল শিক্ষিকা নুরুন নাহার তানজিলাকে নির্যাতনকারী তাঁর স্বামী পীরগঞ্জ সরকারি কলেজের প্রভাষক আনোয়ার ইসলাম ও তার সহযোগিদের দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

বুধবার দুপুরে শহরের চৌরাস্তায় জেলার সম্মিলিত নারী সমাজের উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দ্রোপদী দেবি আগরওয়ালা, মহিলা পরিষদ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুচরিতা দেব, জননী সংস্থার নির্বাহী পরিচালক এম, এস নূর বানু, এমকেপির জেন্ডার বিষয়ক কর্মকর্তা মৌসুমি রহমান, প্রবীণ সাংবাদিক মনসুর আলী প্রমূখ।

বক্তাগন স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা নুরুন নাহার তানজিলাকে নির্মম ভাবে নির্যাতনের অভিযোগে মামলা দায়ের করার পরও তাঁর স্বামী আনোয়ার ইসলাম গ্রেফতার না হয়ে এখনও পীরগঞ্জ সরকারি কলেজে প্রভাষক পদে বহাল তবিয়তে চাকরি করছেন উল্লেখ করে নিন্দা জানান। সেইসাথে অবিলম্ভে নির্যাতনকারী প্রভাষক স্বামী ও তার পরিবারের অভিযুক্ত সদস্যদের দ্রুত গ্রেফতারসহ কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করার আহ্বান জানান।

এ কর্মসূচিতে বিভিন্ন নারী সংগঠনের নেতাকর্মী ছাড়া অসংখ্য পেশাজীবী অংশ নিয়ে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁও শহরের গোয়াল পাড়া এলাকার মুক্তিযোদ্ধা শেখ নুরুল ইসলামের মেয়ে স্কুল শিক্ষিকা নুরুন নাহার তানজিলা ও সদর উপজেলার শুখানপুকুরী লাউথুতি গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে পীরগঞ্জ সরকারি কলেজের প্রভাষক আনোয়ার ইসলামের সাথে দীর্ঘ দিনের প্রেমের পরে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য প্রভাষক স্বামী ও তার পরিবার স্কুল শিক্ষিকাকে প্রায় সময় অত্যাচার করতো। গত ২৪ অক্টোবর তানজিনাকে আবারো তার স্বামী মারপিট করে মাথা ফাটিয়ে দেয়। খবর পেয়ে স্কুল শিক্ষিকাকে তার পরিবার উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে তানজিলার বাবা বাদি হয়ে সদর থানায় প্রভাষক স্বামী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে যৌতুকের কারণে স্ত্রীকে নির্যাতনের মামলা করেন। কিন্তু মামলার ১৫ দিন পার হয়ে গেলেও পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেফতার করেনি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: