২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ইয়েমেনে, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ সামরিক আগ্রাসনতুল্য


ইয়েমেনে, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ সামরিক আগ্রাসনতুল্য

অনলাইন ডেস্ক ॥ প্রতিবেশী দেশ ইয়েমেনে হুতি বিদ্রোহীদের কাছে ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করে ইরান ‘সরাসরি সামরিক আগ্রাসন’ চালানোর মতো তৎপরতা চালিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।

যুবরাজকে উদ্ধৃত করে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সৌদির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, শনিবার সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের একটি স্থাপনাকে লক্ষ্য করে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্র আটকে দেয় আকাশ প্রতিরক্ষা বাহিনী। সৌদির দাবি, ইরান-সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীরা এই ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ে। এমন বাস্তবতায় ইরানবিরোধী বক্তব্য দিলেন সৌদি যুবরাজ।

ইয়েমেনে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সরকারকে সমর্থন দিচ্ছে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন বাহিনী। তারা হুতি বিদ্রোহীদের লক্ষ্য করে নিয়মিতই হামলা চালাচ্ছে। এই যুদ্ধে নিহত হয়েছে ১০ হাজারের বেশি মানুষ। এতে ভয়াবহ মানবিক সংকট তৈরি হয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দরিদ্রতম দেশটিতে।

সৌদির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সৌদি প্রেস এজেন্সির (এসপিএ) খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে আলাপকালে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান বলেন, হুতি বিদ্রোহীদের কাছে ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ ‘(সৌদি) রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ বাধিয়ে দেওয়ার শামিল’।

ওই ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সঙ্গে কোনো যোগসূত্র নেই বলে দাবি করেছে ইরান। ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার ঘটনাকে ‘ধ্বংসাত্মক ও উসকানিমূলক’ বলে সৌদি আরব যে বিবৃতি দিয়েছে, তা নাকচ করে দিয়েছে শিয়া সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশটি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: