২২ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

গাইবান্ধায় গাভীর দুধ উৎপাদনকারি খামারিদের নিয়ে সমন্বয় সভা

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৭, ০২:৪৯ পি. এম.
গাইবান্ধায় গাভীর দুধ উৎপাদনকারি খামারিদের নিয়ে সমন্বয় সভা

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা ॥ গাইবান্ধার সাব ন্যাশনাল মাল্টি স্টেকহোল্ডার ফোরামের সমন্বয় সভা বৃহস্পতিবার জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। এসকেএস ফাউন্ডেশন আয়োজিত এই সমন্বয় সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রাণি সম্পদ অফিসার ডাঃ মো. আব্দুল লতিফ। সভায় ফোরামের সদস্যরা ছাড়াও ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের ১২টি দুধ উৎপাদনকারি দলের প্রান্তিক গাভী প্রতিপালক খামারিরা অংশ গ্রহণ করে।

সমন্বয় সভায় বক্তব্য রাখেন অগ্রণী ব্যাংকের এজিএম শেখ আকরাম উদ্দিন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক তোফায়েল আহম্মদ খান, গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের সভাপতি কেএম রেজাউল হক, সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর সাবু, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহনাজ আকতার, জেলা সমবায় অফিসার মো. অহিদুজ্জামান খন্দকার, বাসস প্রতিনিধি সরকার মো. শহিদুজ্জামান, ফুলছড়ি উপজেলা ইউএলও ডাঃ আবুল কালাম সামসুদ্দিন, ইয়ারন বেগম, রিকল প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়কারি বাহারাম খান, অনিতা রাণী প্রমুখ।

সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যে, এই ফোরাম এখন থেকে জেলা দুগ্ধ উৎপাদন ফোরাম, গাইবান্ধা হিসেবে পরিচিত হবে। এছাড়া সভায় ফোরামের আওতাভূক্ত প্রান্তিক দুগ্ধ উৎপাদক দলগুলোকে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর এবং সমবায় বিভাগের আওতায় রেজিষ্ট্রেশন করানোর জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ, ব্যাংকগুলোকে সহজ শর্তে সংশ্লিষ্ট দলগুলোকে ঋণ প্রদানের আহবান জানানো হয়। সেইসাথে প্রতি ৩ মাসে ফোরামের নিয়মিত সভা অনুষ্ঠানেরও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এসকেএস ফাউন্ডেশনের রিকল প্রকল্পের আওতায় জেলার ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার ৩টি ইউনিয়নে ১২টি দুধ উৎপাদনকারি দলের ৬শ’ জন প্রান্তিক খামারি গাভী প্রতিপালন ও দুধ উৎপাদনে কাজ করে যাচ্ছে। আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগি সংস্থা অক্সফামের আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় এই প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হয়ে আসছে।

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৭, ০২:৪৯ পি. এম.

২৬/১০/২০১৭ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: