১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ওস্টাপেঙ্কোকে উড়িয়ে দিলেন মুগুরুজা


ওস্টাপেঙ্কোকে উড়িয়ে দিলেন মুগুরুজা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ডব্লিউটিএ ফাইনালসে দুর্দান্ত শুরু করেছেন গারবিন মুগুরুজা। রবিবার উইম্বলডনের চ্যাম্পিয়ন ৬-৩ এবং ৬-৪ গেমে রীতিমতো উড়িয়েই দেন জেলেনা ওস্টাপেঙ্কোকে। ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপাজয়ী লাটভিয়ার এই টেনিস তারকাকে পরাজিত করতে এদিন মুগুরুজা সময় নেন মাত্র ৮৫ মিনিট। এমন জয়ের পর দারুণ রোমাঞ্চিত বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক এই নাম্বার ওয়ান। সেইসঙ্গে ডব্লিউটিএ ফাইনালস জিতে হারানো র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানও পুনরুদ্ধার করতে মরিয়া স্পেনের এই টেনিস তারকা। দিনের প্রথম ম্যাচে এদিন জয়ের স্বাদ পেয়েছেন ক্যারোলিনা পিসকোভাও। চেক প্রজাতন্ত্রের এই টেনিস তারকা এদিন পরাজয়ের স্বাদ উপহার দিয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভেনাস উইলিয়ামসকে।

২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো ডব্লিউটিএ ফাইনালসে অংশগ্রহণ করেছিলেন গারবিন মুগুরুজা। প্রথমবার অংশ নিয়েই সেমিফাইনালের টিকেট কেটেছিলেন তিনি। এবার তৃতীয়বারের মতো ডব্লিউটিএ ফাইনালস খেলছেন এই স্প্যানিয়ার্ড। তবে অতীতের চেয়ে এই সময়ের মুগুরুজা একেবারেই ভিন্ন। কেননা টেনিস কোর্টে এই মুহূর্তে দুর্দান্ত সময় কাটছে তার। গত বছরে ফরাসী ওপেনের শিরোপা জয়ের পর এবার উইম্বলডনেও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, টানা দুই বছরে দুই গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্টে নিজের শোকেসে তোলার সৌজন্যে বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানও দখল করে নেন তিনি। তাই এবার সিঙ্গাপুরের এই টুর্নামেন্টে তার প্রত্যাশাটাও একটু বেশি।

শুরুটাও করেছেন ঠিক নিজের মতো করেই। হোয়াইট গ্রুপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয় দিয়েই নিজের মিশন শুরু করেন তিনি। প্রথম ম্যাচে বর্তমান বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের দুই নাম্বারে থাকা গারবিন মুগুরুজা খুব সহজেই হারান সাত নাম্বারে থাকা জেলেনা ওস্টাপেঙ্কোকে। চলতি বছরের চার গ্র্যান্ডস্লামে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন চারজন। প্রথম নিজের শোকেসে তোলেন সেরেনা উইলিয়ামস। এরপর অন্তঃসত্ত্ব¡া হওয়ার কারণে আর টেনিস কোর্টেই দেখা যায়নি আমেরিকান টেনিসের জীবন্ত এই কিংবদন্তিকে। সেই সুযোগটাই অবশ্য কাজে লাগিয়েছেন অন্যরা। বাকি তিনটিতে চ্যাম্পিয়ন হন জেলেনা ওস্টাপেঙ্কো, গারবিন মুগুরুজা এবং স্লোয়ান স্টিফেন্স। ওস্টাপেঙ্কো এবং মুুগুরুজা চলতি মৌসুমে সমান একটি করে গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের স্বাদ পেয়েছেন। তাই ডব্লিউটিএ ফাইনালসে এই ম্যাচের আগেও ভক্ত-অনুরাগীদের ছিল বাড়তি উন্মাদনা। তবে শেষের হাসিটা হেসেছেন মুগুরুজাই।

ম্যাচ শেষে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে মুগুরুজা বলেন, ‘আমি আরও কঠিনভাবে পরাজিত করতে চেয়েছিলাম প্রতিপক্ষকে। কিন্তু সেই সুযোগটা অবশ্য সে আমাকে দেয়নি। তবে শেষ পর্যন্ত ম্যাচটা জেতায় আমি খুবই আনন্দিত।’ অন্যদিকে হার দিয়ে মিশন শুরু করায় চরম হতাশ জেলেনা ওস্টাপেঙ্কো। এ প্রসঙ্গে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আসলে আমি খুব এটা খুশি হতে পারিনি। কেননা, তার বিপক্ষে ম্যাচে আমি অসংখ্য আনফোর্সড ইরর করেছি। যার মাশুল দিতে হলো হারে। তবে এদিন আমি কোর্টে দাঁড়াতেই পারছিলাম না। যে কারণে ম্যাচটা উপভোগ করতে পারিনি নিজের মতো করে।’

এর আগের ম্যাচে ভেনাসকে হারানো পিসকোভা টানা দ্বিতীয়বারের মতো এই টুর্নামেন্টে খেলছেন। কিন্তু ভেনাস উইলিয়ামস ডব্লিউটিএ ফাইনালসে ফিরেছেন দীর্ঘ আট বছর পর। সেই সুযোগটাই কাজে লাগিয়েছেন পিসকোভা। এ প্রসঙ্গে ম্যাচ শেষে নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে কিছুদিনের জন্য হলেও বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান দখল করা পিসকোভা বলেন, ‘গত কয়েক বছর ধরেই ডব্লিউটিএ ফাইনালসে খেলেননি ভেনাস উইলিয়ামস। আমি মনে করি সেজন্যই আমি তার বিপক্ষে এগিয়েছিলাম। ’ সিঙ্গাপুরের এই টুর্নামেন্টে খেলছেন বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ আট তারকা প্রমীলা খেলোয়াড়। তবে মজার ব্যাপার হলো এই টুর্নামেন্টে যে শিরোপা জিতবে তারই সুযোগ আছে আবারও শীর্ষে ওঠার।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: