১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

প্রিয় চরিত্রের হাত ধরে জাদুর রাজ্যে, বিপুল হাসিরাশি আনন্দ


প্রিয় চরিত্রের হাত ধরে জাদুর রাজ্যে, বিপুল হাসিরাশি আনন্দ

মোরসালিন মিজান

ছোটদের জন্য বড় খবর বটে। তাদের প্রিয় চরিত্র হ্যারি পটার নিয়ে এখন চলছে দারুণ উৎসব। বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এ উৎসবের আয়োজন করেছে ব্রিটিশ কাউন্সিল। বইয়ের পাতা বা সিনেমার পর্দায় হ্যারি পটারকে খোঁজা নয় শুধু, তার জাদুর পৃথিবী পরিভ্রমণের সুযোগ রাখা হচ্ছে উৎসবে। আনন্দঘন আয়োজনের প্রাণ ছোট ছোট ছেলে মেয়েরা। তাদের উপস্থিতিতে গত কয়েকদিন মুখরিত ছিল ফুলার রোডের ব্রিটিশ কাউন্সিল। আর এখন ঢাকার বাইরের হ্যারি পটার। বিভিন্ন বিভাগীয় শহর মাতাচ্ছে।

ব্রিটিশ কাউন্সিলের ‘লাইব্রেরিজ আনলিমিটেড’ প্রকল্পের অংশ হিসেবে হ্যারি পটার উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। আয়োজনটির সঙ্গে রয়েছে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ও। উৎসবের উপলক্ষÑ প্রকাশনা সংস্থা ব্লুমসবারির ‘হ্যারি পটার এ্যান্ড দ্য ফিলোসফারস স্টোন’ প্রকাশের ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। দীর্ঘ প্রস্তুতি শেষে গত ১৫ অক্টোবর ঢাকায় সূচনা করা হয় উৎসবের। হ্যারি পটারের নামে উৎসব বলে কথা! অংশ নেয়ার সুযোগ তাই কেউ হাতছাড়া করতে চায় না। অসংখ্য ছেলে মেয়ে নিবন্ধন করে। বাকিদেরও একেবারে হতাশ করেননি আয়োজকরা। তারাও বিভিন্ন ইভেন্টে অংশ নেয়ার সুযাগ পায়। হ্যারি পটারের সঙ্গে আনন্দঘন সময় কাটায় প্রায় ২ হাজার খুদে ভক্ত। না, সশরীরে উপস্থিত হননি হ্যারি পটার। তবে তাকে অনুভব করার, তার বিচিত্র রাজ্যে ঘুরে বেড়ানোর চমৎকার সুযোগ রাখা হয় উৎসবে। কুইজ, গেম, ট্রেজার হান্ট, প্যানেল ডিসকাশন, ছবি আঁকাসহ নানা আয়োজনে মেতেছিল খুদেরা। উইজার্ড ক্লাসরুমের কথা আলাদা করে বলতে হয়। জুয়েল আইচের মতো বিখ্যাত জাদু শিল্পীর জাদু সামনে থেকে দেখার সুযোগ পায় অংশগ্রহণকারীরা। জাদু শেখার শখ? কাউকে চমকে দেয়া চাই? শিখিয়ে দেন জুয়েল আইচ! কার কাছে হ্যারি পটারের কী সংগ্রহ আছে তাও দেখায় ছোটরা। একে অন্যের সঙ্গে আবেগগুলো সুন্দর শেয়ার করে। এভাবে ১৯ অক্টোবর পর্যন্ত মুখরিত ছিল ফুলার রোডের ব্রিটিশ কাউন্সিল ক্যাম্পাস।

এখন ঢাকার বাইরে চলছে দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের আয়োজন। রাজধানীর বাইরের শহরগুলোতে ঘুরে বেড়াচ্ছে শিশু কিশোরদের প্রিয় চরিত্র হ্যারি পটার। বিভাগীয় গণগ্রন্থাগারগুলোতে আয়োজন করা হচ্ছে হ্যারি পটার উৎসব। গত ২১ অক্টোবর উৎসবের আয়োজন করা হয় রাজশাহীতে। আগামী ২৮ অক্টোবর চট্টগ্রাম, সিলেট ও খুলনায় আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে উৎসব।

হ্যারি পটার সারা বিশ্বের সেরা কল্পকাহিনীগুলোর অন্যতম। শিশু কিশোরদের কাছে, এমনকি বড়দের কাছে বিপুল আবেদন সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে এই চরিত্র। সিরিজের বই এবং সিনেমা সারা বিশ্বে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। ইংরেজী ভাষায় লেখা হ্যারি পটারের কল্পকাহিনী বাংলা ভাষাসহ বিশ্বের প্রায় ৮০টি ভাষায় অনুবাদ করা হয়েছে। এতে বন্ধুত্ব, ভালবাসা, বুদ্ধিমত্তা, হাস্যরস ও কৌতুকবোধের চমৎকার প্রকাশ ঘটিয়েছেন লেখক জে কে রাউলিং।

আয়োজকদের পক্ষে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা আর্শিয়া আজিজ বলেন, ব্রিটিশ কাউন্সিল হ্যারি পটারের জাদুর রাজ্যে শিশু কিশোরদের পরিভ্রমণের সুযোগ করে দিয়েছে। তারা পুরো আয়োজনটি উপভোগ করছে। ভবিষ্যতে উৎসবটি আরও বড় পরিসরে করার কথা ভাবা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: