২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বরিশালে নেতার ছবিযুক্ত খামে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ!


বরিশালে নেতার ছবিযুক্ত খামে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ!

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ নির্বাচন কমিশনের খামের বদলে বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের এক প্রভাবশালী নেতার ছবিযুক্ত খামে ভরে ভোটারদের মাঝে স্মার্ট জাতীয়পরিচয়পত্র বিতরণ করা হচ্ছে। কোথাও কোথাও নির্বাচন কমিশনের খাম ছিড়ে ফেলা হয়েছে। যে খামে ভরে স্মার্ট জাতীয়পরিচয়পত্র দেয়া হয়েছে তাতে দেখা গেছে বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর ছবি।

নির্বাচন কমিশনের বরিশাল কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নগরীতে গত ১ অক্টোবর থেকে স্মার্ট জাতীয়পরিচয়পত্র বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে; চলবে মাসজুড়ে। বরিশাল সিটি করপোরেশনের ৩০টি ওয়ার্ডে তিন লাখ ৩০ হাজার পরিচয়পত্র বিতরণ করবে নির্বাচন কমিশন। সিটি করপোরেশন এতে সার্বিক সহযোগিতা দিচ্ছে। ৮ অক্টোবর দুপুরে নগরীর ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের হালিমা খাতুন বালিকা বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা গেছে, নির্বাচন কমিশনের ব্যানার সাঁটানো। নিচে পরে আছে নির্বাচন কমিশনের মনোগ্রামযুক্ত অসংখ্য ছেঁড়া খাম। পাশের মাঠেও ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে এমন ছেঁড়া খাম। যারা স্মার্ট জাতীয়পরিচয়পত্র নিয়ে বেরোচ্ছেন, তাদের সবার হাতে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর ছবিযুক্ত খাম। তাদের একজন নগরীর ব্রাউন কম্পাউন্ড এলাকার বাসিন্দা আইনজীবী সাঈদ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, নির্বাচন কমিশনের লোকজনের সামনেই সরকারী খাম ছিড়ে আওয়ামীলীগ নেতার ছবিযুক্ত খামে পরিচয়পত্র ভরে বিতরণ করছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ৮ ও ৯ অক্টোবর ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে, ১১ ও ১২ অক্টোবর ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে এবং ১৭ অক্টোবর ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে জাতীয়পরিচয়পত্র বিতরণ কার্যক্রমেও এমন অবস্থা দেখা গেছে।

এ ব্যাপারে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ সাংবাদিকদের জানান, জাতীয়পরিচয়পত্র বিতরণের সময় এটা একটা প্রচার। প্রথমদিকে নির্বাচন কমিশনের দেয়া কিছু খাম ছিড়ে ফেলার ঘটনা ঘটেছে। যাতে দল বা সরকারের বদনাম না হয়, সেজন্য খামগুলো নির্দিষ্ট ব্যাগে সংরক্ষণ করতে বলা হয়েছে। তারপরেও ছিড়ে ফেলা হয়ে থাকলে সেটা খতিয়ে দেখা হবে।

১১ অক্টোবর দুপুরে বরিশাল সরকারী বালিকা বিদ্যালয় থেকে বের হচ্ছিলেন ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আক্তারুজ্জামান হিরু। তার হাতে ছিল স্মার্ট জাতীয়পরিচয়পত্র। তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ নেতা সাদিক আব্দুল্লাহ তার প্রচারের জন্য ওই খামে ভরে পরিচয়পত্র দিচ্ছেন। এটা দোষের কিছু নয়।

১৭ নম্বর ওয়ার্ডের বগুড়া রোডের কয়েকজন বাসিন্দা ও রাখাল বাবুর পুকুর পাড় এলাকার একাধিক বাসিন্দাদের হাতে সাদিক আব্দুল্লাহর ছবিযুক্ত খাম দেখা যায়। সেই খামে আছে তাদের স্মার্ট জাতীয়পরিচয়পত্র। গত মঙ্গলবার দুপুর একটার দিকে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের অক্সফোর্ড মিশন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে কথা হয় মুনশী গ্যারেজ এলাকা থেকে কার্ড নিতে আসা বেশ কয়েকজনের সাথে। তারা বলেন, নির্বাচন কমিশনের খাম তারা বিতরণকেন্দ্রের টেবিলের ওপর দেখেছেন। ওখানে যারা দায়িত্বে ছিলেন তারা কমিশনের খাম ছিড়ে সাদিকের ছবিযুক্ত খামে পরিচয়পত্র ভরে তাদের দিয়েছেন।

একটি খাম সংগ্রহ করে দেখা গেছে, খামের নিচের অংশে লেখা রয়েছে, ‘আমরাই গড়ব আগামীর বরিশাল, সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, বরিশাল মহানগর’।

সিটি করপোরেশনের সংরক্ষিত (১৭, ১৮ ও ১৯ নম্বর) ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইসরাত আমান বলেন, ‘ওরা নির্বাচন কমিশনের খাম ছিড়ে ফেলে সাদিকের খাম দিচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের অভিযোগ না থাকলে আমাদের কিছু করার নেই।’

এ ব্যাপারে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের দেয়া খাম ছিড়ে ফেলার বিষয়টি দুই এক জায়গায় আমাদেরও চোখে পরেছে। তখন আমি বাঁধাও দিয়েছি। তারপরেও করা হচ্ছে। এটা হওয়া উচিত নয়।’

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: