১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সরকারের হুকুমেই রাস্তার সব বৈদ্যুতিক বাতি নিভিয়ে দেওয়া হয় ॥ রিজভী


সরকারের হুকুমেই রাস্তার সব বৈদ্যুতিক বাতি নিভিয়ে দেওয়া হয় ॥ রিজভী

অনলাইন রিপোর্টার ॥ বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী দাবি করেন, আওয়ামী লীগ চায় সেনাবাহিনী ঠুঁটো জগন্নাথ হয়ে বসে থাকুক, তাই তারা সেনাবাহিনীকে বিচারিক ক্ষমতা দিতে চায় না।

আজ শুক্রবার দলের পক্ষ থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে রিজভী এমন দাবি করেন।

বিএনপির এই নেতা বলেন, নির্বাচন কমিশনে আওয়ামী লীগ যে ১১ দফা প্রস্তাব পেশ করেছে, তা গণতন্ত্র ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সহায়ক নয়। কীভাবে নির্বাচনকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়, কীভাবে নির্বাচন পর্যবেক্ষক ও গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়, কীভাবে ভোটের ফল পাল্টে দেওয়া যায়, সেই কৌশল আছে ওই সব প্রস্তাবে। তিনি বলেন, সেনাবাহিনীকে বিচারিক ক্ষমতা না দিলে ভোট-সন্ত্রাস রোধ করা যাবে না।

বিগত আওয়ামী শাসনামলে অনেক দলীয় ক্যাডারের লাইসেন্স ও বিনা লাইসেন্সে অস্ত্র দেওয়া হয়েছে। এখন ভোট গ্রহণের দিন আওয়ামী লীগের অনুকূলে সন্ত্রাসী কায়দায় ব্যালট বাক্স ভর্তি করতে সেই অস্ত্রগুলোই ব্যবহার হবে।

গত বুধবার বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া লন্ডন থেকে দেশে ফিরেছেন।

বিমানবন্দর থেকে নেত্রী বাসায় আসার পথে সরকারের নির্দেশে বিমানবন্দর রুটের দুপাশের বাতিগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেন রিজভী।

তিনি বলেন, প্রিয় নেত্রীকে একনজর দেখার জন্য অপেক্ষারত লক্ষ লক্ষ জনতা রাস্তার দুপাশে দাঁড়িয়েছিল। জনতাকে বিভ্রান্ত ও খালেদা জিয়ার গাড়িবহর যাতে ঠিকমতো এগোতে না পারে, সে জন্য আকস্মিকভাবে রাস্তার দুধারের সব বৈদ্যুতিক বাতি নিভিয়ে দেওয়া হয়। সরকারের হুকুমেই এটি সংঘটিত হয়েছে। তিনি এ ঘটনার নিন্দা জানান।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: