২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শেখ রাসেলকে হৃদয়ে ধারণ করবে তরুণরা


শেখ রাসেলকে হৃদয়ে ধারণ করবে তরুণরা

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ শেখ রাসেল মানে- গতি, থেমে না থাকার স্বপ্ন, অফার সম্ভাবনা। শেখ রাসেলের মধ্যে স্বপ্নের পাপড়ি গাঁথা ছিল। আমাদের চলার পথ, স্বপ্ন আর সম্ভাবনায় রাসেল আজও বেঁচে আছে। সেই সম্ভাবনাকে বাস্তবায়ন করতে হবে তরুণদের। তাই শেখ রাসেলকে আমাদের অন্তরে ধারণ করতে হবে। রাসেল তুমি বেঁচে থাকবে চিরকাল।

বুধবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়স্থ ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুলের মাঠ প্রাঙ্গনে কবি, শিল্পী, শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা শেখ রাসেলের ৫৩ তম জন্মবার্ষিকীর আলোক প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে এভাবেই তাঁকে স্মরণ করেন। কবিতা গান আর আলোক প্রজ্জ্বলন করতে শত শত শিশুরা একত্রিত হয়।

শিশুর বাসযোগ্য মানবিক বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুলের এক্স-স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়শন (ইউলেসা) আলোক প্রজ্জ্বলন কর্মসূচির আয়োজন করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- সংসদ সদস্য কাজী রুজি, সাবেক সংসদ সদস্য পান্না কায়সার ও রুজি রহমান, ঢাবি আইইআর’র পরিচালক অধ্যাপক সৈয়দা তাহমিনা আক্তার, ইউলেসার সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান সরকার লিটু, সহ-সভাপতি নাসির ইকবাল জাদু, কোষাধ্যক্ষ হাফিজুল হক রুবেল, স্কুলের অধ্যক্ষ মিসেস সেলিনা বানু, উপ-অধ্যক্ষ মিসেস সেলিনা আক্তার। শিশু শেখ রাসেল এই স্কুলে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র থাকাকালীন ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকের বুলেটের আঘাতে শহীদ হন।

অনুষ্ঠানে কাজী রুজি বলেন, ‘শেখ রাসেল মানে গতি, থেমে না থাকার স্বপ্ন। তাই আমাদের তরুণদেরকে শেখ রাসেলের আদর্শ অনুসরণ করতে হবে।’ অধ্যাপক পান্না কায়সার বলেন, ‘শেখ রাসেলের মধ্যে স্বপ্নের পাপড়ি গাঁথা ছিল। সেই স্বপ্নকে ঘাতকরা শেষ করে দিয়েছে।’ শেখ রাসেলকে স্মরণ করে তিনি বলেন, তুমি আমাদের চলার পথ, স্বপ্ন আর সম্ভাবনায় রয়েছ। তোমাকে আমরা ধারণ করেছি আমাদের অন্তরে। তুমি বেঁচে থাকবে চিরকাল। তিনি বলেন, শেখ রাসেল যদি ৫৩ বছর বেঁচে থাকতেন তাহলে আজ শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতেন।

শেখ রাসেলের মধ্যে ছোটকালেই নেতৃত্ব ফুটে উঠেছিল উল্লেখ করে কবি রুবি রহমান বলেন, রাসেল বেঁচে থাকলে আমরা এমন একজন নেতা পেতাম যে আমাদের দেশকে সুন্দরভাবে গড়ে তোলতে পারতেন। তার মধ্যে নানা রকম স্বপ্ন ছিল। আমাদের দেশের হায়েনারা সেটা ধ্বংশ করে দিয়েছে। সেই সম্ভাবনাকে বাস্তবায়ন করতে হবে তরুণদের। কোন শিশুর স্বপ্ন যেন এভাবে স্বমূলে বিনষ্ট না হয়।

তিনি বলেন, শোকে হৃদয় ভরে আছে, আনন্দ আসেনা। তাই লজ্জার সঙ্গে জানাই শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। এমন ছোট ছেলেকে যেন আর হারাতে না হয়।

এর আগে সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাচে কেক কেটে শেখ রাসেলে জন্মদিন পালন করেন ছাত্রলীগের নেতারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন, ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি আবিদ আল হাসানসহ ছাত্রলীগের বিভিন্ন হল ও ইউনিটের নেতারা।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: