২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শিল্পকলায় সংস্কার নাট্যদলের ‘বশীকরণ’ আজ


শিল্পকলায় সংস্কার নাট্যদলের ‘বশীকরণ’ আজ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সংস্কার নাট্যদল প্রযোজিত ‘বশীকরণ’ নাটকটি আজ সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির এক্সপেরিমেন্টাল হলে চতুর্থ মঞ্চায়ন হবে । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত নাটকটি নির্দেশনা ও নবনাটলিপির প্রয়োগ করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের অধ্যাপক ইউসুফ হাসান অর্ক। নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করবেন কনক, আশিকুর, বাপ্পী, নদী, আরিফুল, পৃথা, শ্রাবণ, স্বপন, ইভা, সামিয়া, মুকুল, সন্ত, চঞ্চল, সুজন, নিশু, রফিকুল, মিজানুর, সাজ্জাদ, অলি, বশির, মাসুদ ও শহীদুল প্রমুখ। নাটকের প্রযোজনার মঞ্চ ও সঙ্গীতে ইউসুফ হাসান অর্ক, আলো হাবিব মাসুদ, পোশাক সামিউন জাহান দোলা, কোরিওগ্রাফি আমিনুল আশরাফ, রূপসজ্জা লিপি দে। নাটকের কাহিনীতে দেখা যায়, দুই বিপরীতমুখী দর্শনে দীক্ষিত বন্ধু অন্নদা ও আশু। অন্নদা ব্রাহ্ম ধর্ম গ্রহণ করায় খানিকটা আধুনিক, পাশ্চাত্য যুক্তিবাদ ও তথাকথিত বিজ্ঞানমনস্ক। আশু ফিজিক্যাল সায়েন্সে এমএ করেও সনাতন ধর্মের সংস্কার ও ভক্তিবাদে বিশ্বাসী। অন্নদার স্ত্রী তার শ্বশুরের গোঁড়ামিতে অনিচ্ছা সত্ত্বেও স্বামী ছেড়ে গয়া-কাশী ঘুরে বশীকরণ মন্ত্রে দীক্ষাদাত্রী মাতাজী সেজে এই শহরে এসেছেন। আরেক বিধবা মা তার কন্যাকে পাত্রস্থ করার পরিকল্পনা নিয়ে একই শহরে হাজির। ঘটনাক্রমে দুজন যে দুটি বাড়ি ভাড়া নিয়েছে তা একই মালিকের। মাতাজীর আবদারে বাড়িওয়ালা তার জন্য বরাদ্দকৃত ২২ নম্বর বাড়ি থেকে তাকে ৪৯ নম্বরে পাঠান। আর ওই বিধবা মাতা ওঠেন ২২ নম্বরে। অন্নদার ৪৯ নম্বরে এক কন্যা দেখতে যাওয়ার কথা ছিল। আর আশুর যাওয়ার কথা ২২ নম্বরে মন্ত্র দীক্ষা নিতে। বন্ধু যুগলের জানা হলো না যে ভাড়াটে বদল হয়েছে। তাই ভাড়াটে বদল হয়ে যাওয়ার বিভ্রাটে পড়ে দুজনই। নানা ঝামেলার পর দেখা যায় অন্নদার স্ত্রীই আসলে মাতাজী আর দীক্ষা নিতে গিয়ে দেখা গেল কনেটাকেও আশুর পছন্দ হয়। এ নিয়ে কারবার। শেষ পর্যন্ত বিপরীত দার্শনিকতার দুই বন্ধুরই বশীকরণ ঘটে।