১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পটিয়ায় মাদক সম্রাট জহিরের আস্তানা থেকে বিপুল মদ উদ্ধার


পটিয়ায় মাদক সম্রাট  জহিরের আস্তানা থেকে বিপুল মদ উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া ॥ পটিয়া থানা পুলিশ মাদক সম্রাট জহিরুল হক মল্ল (৪৫) আস্তানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ ছোলাই মদ উদ্ধার করেছে। তবে কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। রবিবার ভোরে উপজেলার ধলঘাট ইউনিয়নের উত্তর সমুরা গ্রামে জহিরের আস্তানায় পুলিশ এ অভিযান চালায়। ছোলাই মদ ছাড়াও বাড়ির চারপাশ থেকে ৫টি সিসিটিভি ও ক্যামরার সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে জহিরসহ একটি সিন্ডিকেট রাঙ্গুনিয়া ও বোয়ালখালী উপজেলার পাহাড়ি অঞ্চল হয়ে ছোলাই মদ এনে পটিয়াসহ দক্ষিণ চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় সরবরাহ করে আসছে। এই মাদক ব্যবসায়ীর হাতে এলাকার লোকজন জিম্মি।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ধলঘাট ইউনিয়নের উত্তর সমুরা গ্রামের আহমদুল হক মল্ল’র পুত্র জহিরুল হক দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে মাদক ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত। উপজেলার কেলিশহর, হাইদগাঁও, ধলঘাট, খরনা, কচুয়াই, পৌর এলাকা ছাড়াও উপজেলার সর্বত্র ছোলাই মদ পাইকারী ও খুচরা বিক্রী করে আসছিল। তার আস্তানায় ছোলাই মদ রাখার জন্য ঘরের ভিতর বিশাল একটি ‘সুরঙ্গ’ করেছে। ওই সুরঙ্গে ছোলাই মদ এনে প্রথমে মজুত করা হয়। পরে বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহ করে থাকে। তার বাড়ির চারিদিকে সিসিটিভি ক্যামরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। ফলে পুলিশ প্রশাসন কিংবা গোয়েন্দা সংস্থা অভিযান চালানোর আগেই সে ও তার সাঙ্গোপাঙ্গরা পালাতে সক্ষম হয়। রবিবার ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পটিয়া থানার ওসি শেখ মোঃ নেয়ামত উল্লাহ’র নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ ছোলাই মদ উদ্ধার করে। দীর্ঘ ৪ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে তার আস্তানা থেকে প্রায় দুই হাজার লিটার ছোলাই মদ উদ্ধার করে। এলাকাবাসী জানিয়েছেন, মাদক স¤্রাট জহির ছোলাই মদ ছাড়াও ইয়াবা পাইকারী ও খুচরা বিক্রী করে থাকেন। প্রতিদিন তার আস্তানায় বিভিন্ন এলাকার যুবকরা মোটরসাইকেল নিয়ে মদ ও ইয়াবা বিকিকিনি করতে আসেন।

পটিয়া থানার ওসি শেখ মোঃ নেয়ামত উল্লাহ বলেন, মাদক স¤্রাট জহিরুল হক মল্ল’র বিরুদ্ধে থানায় ৫-৭টি মামলা রয়েছে। সে চিহ্নিত একজন মাদক ব্যবসায়ী। পুলিশ প্রায় সময় তাকে গ্রেফতার করতে অভিযান চালান। কিন্তু বাড়ির চারিদিকে সিসিটিভি ক্যামরা লাগানোর কারণে তাকে ধরা সম্ভব হয় না। ছোলাই মদ উদ্ধারের ঘটনায় পটিয়া থানার এসআই খাজু মিয়া বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন বলে জানান।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: