১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

বাগেরহাটে টাকা নিয়ে জমি রেজিষ্ট্রি না দিয়ে হয়রানি


বাগেরহাটে টাকা নিয়ে জমি রেজিষ্ট্রি না দিয়ে হয়রানি

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে টাকা নিয়ে জমি রেজিষ্ট্রি করে না দিয়ে এক সফটওয়্যার প্রকৌশলীকে উল্টো হয়রানীর অভিযোগ উঠেছে। আজ শনিবার দুপুরে বাগেরহাট প্রেসক্লাবের মীর জুলফিকার আলী লুলু অডিটরিয়ামে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেছেন মোরেলগঞ্জের খাউলিয়া ইউনিয়নের প্রকৌশলী মো. মানিকুজ্জামানের ছোট ভাই মোঃ নাইমুল ইসলাম তালুকদার।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন, প্রকৌশলী মো. মানিকুজ্জামান আমেরিকায় দীর্ঘদিন ধরে সফটওয়্যার এর উপরে অভিজ্ঞতা নিয়ে আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে নিজ এলাকায় বেকারত্ব দূর ও মাদক মুক্ত সমাজ গড়তে কাজ শুরু করেন। এরপর থেকে ওই এলাকায় একটি কুচক্রি মহল তার এই কর্মকান্ডে বিরোধীতা শুরু করে। সম্প্রতি একই এলাকার আতাহার, খোকা, শহিদুল ও রুহুল মিস্ত্র মানিকুজ্জামানের চিপা বারুইখালী মৌজা এলাকায় তার মৎস্য ঘের থেকে মাছ লুট ও ফলজ বাগান থেকে গাছ পালা কেটে নেয়। এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে উল্টো তাকে হয়রানীর চেষ্টা করে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়, প্রকৌশলী মো. মানিকুজ্জামানের চাচা মজিদ হাওলাদার জমি বিক্রির কথা বলে তার কাছ থেকে ৬ লাখ টাকা নেয়। পরে মানিকুজ্জামানের নামে জমি রেজিষ্ট্রি করে না দিয়ে উল্টো টাকা নেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে। এ বিষয়য়ে প্রতিকার চেয়ে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দিলে এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে চাচা ও তার চাচাতো বোন মাকসুদা মাকামী স্থানীয় একটি কুচক্রি মহলের সহায়তায় তার বিভিন্ন অপপ্রচারে লিপ্ত হয়। এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৌশলী মো. মানিকুজ্জামান তার বিরুদ্ধে অপপ্রচারকারীদের শাস্তির দাবী জানান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা আবুল কাশেম হাওলাদার ও ইসহাক আলী বলেন, প্রকৌশলী মো. মানিকুজ্জামান এলাকায় ভালো কাজ করতে গিয়ে নাজেহাল হচ্ছেন। আমরা এ ঘটনার সুষ্ট তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: