২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কক্সবাজার ভূমি অফিসে নগদ ছাড়া ফাইল নড়েনা


কক্সবাজার ভূমি অফিসে নগদ ছাড়া ফাইল নড়েনা

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ সদরের পিএমখালী ইউনিয়ন ভুমি অফিসে স্থানীয়রা সেবা না পেয়ে নানাভাবে হয়রানির শিকার হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। দাখিলা, খতিয়ান নামজারি রিপোর্টসহ নানা কাগজপত্রে টাকা না দিলে কোন কাজ হয়না বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগিরা। নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে এ ভূমি অফিসটি। অভিযোগ উঠেছে। এতে সেবা প্রার্থীরা। স্থানীয় মোক্তার মিয়া জানান, ভুমি অফিসে দায়িত্বরত কর্মকর্তা কহিনুর আকতার নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ইচ্ছামতো অফিস করেন। দীর্ঘক্ষণ বসে থাকার পরও ভূমি অফিসে তাকে পাওয়া যায়না।

জানা যায়, কহিনুর আকতার ৬ মাস আগে রামু উপজেলা ভুমি অফিস থেকে বদলি হয়ে যোগদান করার পর থেকে কাজের চেয়ে দুর্নীতির হার বেড়ে চলছে। টাকা না দিলে ফাইল নড়ে না। স্থানীয় ঘাটকুলিয়া পাড়ার নজির আহাম্মদ জানান, তার জমির কয়েকটা দাখিলা কাটার জন্য গেলে তার কাছ থেকে দুই লাখ টাকা দাবী করেন কহিনুর আক্তার। গত এক মাস ধরে অফিসের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও প্রতিকার পাচ্ছে না এই সেবা প্রার্থী স্থানীয় বাসিন্দা।

সহকারী ইউনিয়ন ভুমি তহশীলদার কহিনুর আক্তার অভিযোগ সত্য নয় দাবী করে বলেন, এসব আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। তার স্বামী কক্সবাজার সদর ভূমি অফিসে দায়িত্বরত সৈয়দ নুর ও স্ত্রী কুহিনুর প্রতিমাসে মোটা অঙ্কের ঘুষের বিনিময়ে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে এখনও বহাল তবিয়তে রয়েছে।

অভিযোগে জানা যায়, ভূমি অফিসে অল্প বেতনে চাকরি করে স্বামী স্ত্রী দুইজন ইতোমধ্যে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে গেছেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: