২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নওগাঁয় স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ ॥ মরদেহ উদ্ধার


নওগাঁয় স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ ॥ মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ ॥ নওগাঁয় স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

স্থানিয়রা জানান, নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার হর্ষি দেওয়ান পাড়া গ্রামের মোকলেছুর রহমানের পুত্র সুমন আলীর (২৮) সঙ্গে প্রায় দুই বছর পূর্বে নাটোর জেলার বাগাতীপাড়া উপজেলার মারিয়া গ্রামের আইউব আলীর মেয়ে কল্পনার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী –স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া-ঝাটি লেগেই ছিল বলে মেয়ের পরিবারের অভিযোগ।

স্থানিয়রা আরো জানান, সম্প্রতি কাজ করার উদ্দেশ্যে ৫/৭ দিন পূর্বে সুমন আলী ও তার স্ত্রী বাড়ি থেকে নারায়নগজ্ঞ যান। হঠাৎ করেই শুক্রবার সুমন আলী তার স্ত্রী কল্পনার মৃতদেহ নিয়ে বাড়িতে ফিরে আসেন। মেয়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে কল্পনার পিতা আইউব আলীসহ পরিবারের লোকজন ছুটে আসেন জামাইয়ের বাড়ি নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার হর্ষি দেওয়ান পাড়া গ্রামে। মেয়ের মৃতদেহ দেখে সন্দেহ হওয়ায় থানা পুলিশে সংবাদ দিলে নওহাটা পুলিশ ফাঁড়ির এস আই রইচ উদ্দিন হাজারী ঘটনাস্থলে পৌছে প্রাথমিক সুরতহাল রিপোট শেষে বিকাল ৫ টার দিকে মৃতদেহ উদ্ধার করে পোষ্ট মর্ডেমের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়ে দেন।

গৃহবধূ কল্পনার পিতা আইউব আলী প্রতিবেদককে বলেন, জামাই সুমন আমার মেয়ের ওপর প্রায় নির্যাতন চালাতেন। সুমন আমার মেয়েকে নির্যাতন করে হত্যা করেছে বলেও তার অভিযোগ।

এব্যাপারে এস আই রইচ জানান, গৃহবধূ কল্পনা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এমন দাবী করছেন গৃহবধূর স্বামী সুমন আলী। তবে রিপোর্ট হাতে আসার পর সব জানা যাবে বলে জানান তিনি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: