২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

অবশেষে পুনর্গঠন করা হলো ট্রাইব্যুনাল


অবশেষে পুনর্গঠন করা হলো ট্রাইব্যুনাল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে অভিযুক্তদের বিচারের জন্য গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ দীর্ঘ ৯১ দিনের মাথায় নতুন চেয়ারম্যান পেয়েছে। একই সঙ্গে পুনর্গঠন করা হলো ট্রাইব্যুনাল। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এর পঞ্চম চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ট্রাইব্যুনাল-১ এর সিনিয়র সদস্য বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম। অন্যদিকে হাইকোর্টের বিচারপতি আমির হোসেন ও অবসরোত্তর ছুটিতে থাকা ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ এর সাবেক বিশেষ জজ মোঃ আবু আহমেদ জমাদারকে বিচারক প্যানেলের সদস্য করা হয়েছে। তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনালের বর্তমান সদস্য বিচারপতি সোহরাওয়ারদীকে হাইকোর্টে ফেরত পাঠানো হয়েছে। রাষ্ট্রপতির আদেশে বুধবার বিকেলে আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মোঃ জহিরুল হক স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে আইন মন্ত্রণালয়। বর্তমানে ট্রাইব্যুনালে তিন বিচারপতিই সাবেক জেলা জজ হিসেবে কাজ করেছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবারের মধ্যেই এ বিষয়ে গেজেট হতে পারে বলে দুপুরে জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মোঃ আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার সঙ্গে সাক্ষাত শেষে এ তথ্য জানান তিনি। কিন্তু তার একদিন আগেই ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করা হলো। ১৩ জুলাই চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হক চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। এ সময় থেকে ট্রাইব্যুনালে বিচারিক প্যানেলের সদস্য হিসেবে ছিলেন বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম ও বিচারপতি সোহরাওয়ারদী। পরে হাইকোর্টের বিচারপতি আমির হোসেনকে ট্রাইব্যুনালে নিয়োগে সম্মতি দিয়ে নাম পাঠান সুপ্রীমকোর্ট। নিয়োগ পাওয়া অন্য সদস্য মোঃ আবু আহমেদ জমাদার গত ১৫ জুন থেকে অবসরোত্তর ছুটিতে ছিলেন। নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম জেলা জজ থাকা অবস্থায় ট্রাইব্যুনালের রেজিস্ট্রার হিসেবে নিয়োগ পান। অন্যদিকে সদস্য বিচারপতি আমির হোসেন গাজীপুরের জেলা জজ থাকা অবস্থায় ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত বিচারক হিসেবে নিয়োগ পান। পরে গত ফেব্রুয়ারিতে স্থায়ী বিচারপতি হন।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে ৩৩টি মামলায় ১৪১ জনের বিরুদ্ধে মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এ মামলাগুলো বিভিন্ন পর্যায়ে বিচারকাজ চললেও চেয়ারম্যান আনোয়ারুল হকের মৃত্যুতে বিচারকাজ বন্ধ হয়ে যায়। ট্রাইব্যুনালে নতুন চেয়ারম্যান নিয়োগ দেয়ার পর আবার এ মামলাগুলোর বিচারকাজ শুরু হবে বলে আশা করছেন ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটরবৃন্দ। ২০১০ সালের ২৫ মার্চ পুরাতন হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে স্থাপন করা হয় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। ট্রাইব্যুনাল গঠনে তৎকালীন আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহম্মেদ ও আইন প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। যার চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয় বিচারপতি মোঃ নিজামুল হক নাসিমকে। সদস্য পদে নিয়োগ পান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীর ও অবসরপ্রাপ্ত জজ জহির আহমেদ। মামলার গুরুত্ব অনুধাবণ করে ২০১২ সালের ২২ মার্চ আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ নামে আরেকটি ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়। সেখানে চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয় বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীরকে। সদস্য করা হয় বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীন ও জজ মোঃ শাহিনুর ইসলামকে। ২০১৩ সালের ১৩ অক্টোবর দুটি ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করা হয়। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীর দু’সদস্য বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি আনোয়ারুল হক। ট্রাইব্যুনাল-২ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীন; দু’সদস্য-বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও জেলা জজ মোঃ শাহীনুর ইসলাম। সাবেক চেয়ারম্যান বিচারপতি নিজামুল হক নাসিম তাঁর আগের কর্মস্থল হাইকোর্টে ফিরে যান। তিনি পরবর্তীতে আপীল বিভাগে নিয়োগ পান। বর্তমানে বিচারপতি নিজামুল হক নাসিম অবসরে রয়েছেন।

২০১৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এর সাবেক চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীরের চাকরির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় অবসর গ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি আইন কমিশনের সসদ্য হিসেবে কাজ করছেন। ঐ সময় ৫৪ দিন ধরে চেয়ারম্যান না থাকায় এসব মামলার কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে পরিচালিত হয়নি। দীর্ঘদিন পর ২০১৪ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম। আর সদস্য করা হয় বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি আনোয়ারুল হক। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ এ চেয়ারম্যান করা হয় বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনকে। দুজন সদস্য করা হয়, তারা হলেন বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম। সর্বশেষ ২০১৫ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ নামে একটি ট্রাইব্যুনাল করা হয়। ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান করা হয় বিচারপতি আনোয়ারুল হককে। দুজন সদস্য হলেন বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম ও বিচারপতি মোঃ সোহরাওয়ারদী। আর দুই ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি ওবায়দুর হাসান শাহীন, দুই সদস্য বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম হাইকোর্টে ফিরে যান।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: