২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

বিরোধপূর্ণ ডোকলামে চীন নির্মিত রাস্তার ছবি প্রকাশ


বিরোধপূর্ণ ডোকলামে চীন নির্মিত রাস্তার ছবি প্রকাশ

অনলাইন ডেস্ক ॥ এশিয়ার শক্তিশালী রাষ্ট্র ভারত ও চীনের মধ্যে বিরোধপূর্ণ ডোকলাম মালভূমিতে সব ধরনের বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে দ্রুত রাস্তা নির্মাণ করেছে চীন। গত এক দশকে চীনের নির্মিত সেই রাস্তার স্যাটেলাইটে ধারণ করা কয়েকটি ছবি আজ বুধবার ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি প্রকাশ করেছে।

স্যাটেলাইটে ধারণ করা ছবিতে দেখা যায়, ২০০৫ সালে ডোকলাম মালভূমির চীনা অংশে রাস্তার কোনো অস্তিত্ব পাওয়া যায় না। ২০১১ সালে সেখানে পুরোদমে রাস্তা নির্মাণের কাজ চালিয়ে যেতে দেখা যায় দেশটিকে। ২০১৭ সালের ছবিতে পূর্ণাঙ্গ রাস্তার দেখা মেলে। ডোকলাম অঞ্চলের বিভিন্ন অংশের ছবি এতে স্থান পায়। এতে দুর্যোগপূর্ণ সব পরিস্থিতি মোকাবিলা করে চীনকে কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে দেখা যায়।

ছবিতে আরো দেখা যায়, ডোকলামের এই রাস্তা ভারত-চীন ও ভুটান-চীন সীমান্তবর্তী চীনের শহর ইয়াডেং গিয়ে ঠেকেছে। ভারতের সিকিম থেকে কয়েকশ মাইল দূরে অবস্থিত ইয়াডেংয়ের ঘাঁটি থেকে চীনা সেনারা ডোকলামের সর্বোচ্চ উচ্চতায় তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, চীন ডোকলাম সীমান্তে রাস্তা নির্মাণ শুরু করলেই এ নিয়ে ভারতের সঙ্গে দ্বন্দ্ব তৈরি হয়। এর জের ধরেই গত আগস্টে ডোকলাম মালভূমির সীমান্তে ভারত ও চীনের সেনারা ৭০ দিন ধরে মুখোমুখি অবস্থান নেয়। এ সংকট তৈরি হয় এমন একসময়, যখন ব্রিকসের সম্মেলনে যোগ দিতে নরেন্দ্র মোদি চীন সফরে যাবেন।

এ রকম পরিপ্রেক্ষিতে দুই দেশই সমঝোতায় আসে এবং সীমান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহার করে। এ সময় ডোকলাম মালভূমির ভারত অংশে অবস্থিত সিকিম সীমান্তের কাছাকাছি চলমান রাস্তার নির্মাণকাজ বন্ধ করে বুলডোজার ও অন্যান্য রাস্তা নির্মাণের যন্ত্রপাতি সরিয়ে নেয় চীন। তবে সেগুলো ডোকলাম মালভূমিতেই রাস্তা নির্মাণের কাজে নিয়োজিত থাকে, তবে অন্য প্রান্তে।

ভারতের মিত্র ভুটানের দাবি, ডোকলামে নির্মিত এই রাস্তা চীনকে ভারতের দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চলের সঙ্গে সংযোগ তৈরি করবে। এ অঞ্চলে যেকোনো ধরনের রাস্তা নির্মাণই কৌশলগত কারণে ভারতের জন্য উদ্বেগের।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: