২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ট্রাম্পের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা ইরানের


জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কড়া হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও মাঝারি পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছে ইরান। এই ক্ষেপণাস্ত্র একাধিক ওয়ারহেড বহনে সক্ষম। খবর এএফপি ও বিবিসির।

শনিবার তেহরান জানিয়েছে, এই ক্ষেপণাস্ত্র দুই হাজার কিলোমিটার দূরে আঘাত হানতে পারে। তবে ঠিক কখন এই ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করা হয়েছে তা স্পষ্ট করা হয়নি।

শুক্রবার খোরামশার নামের এই ক্ষেপণাস্ত্র প্রথমবারের মতো প্রদর্শন করে তেহরান। ওইদিন এক সামরিক প্রদর্শনীতে দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেন, ইরান যে কোন হুমকি মোকাবেলায় সামরিক শক্তি বৃদ্ধি অব্যাহত রাখবে। ঠিক এর একদিন পরই তেহরানের এই ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের খবর এলো। শনিবার ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল আমির হাতেমি এ ক্ষেপণাস্ত্রের নানা দিক তুলে ধরেন। তিনি এটিকে অনন্য ক্ষমতার ক্ষেপণাস্ত্র বলে আখ্যা দেন। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ইরান তার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা প্রতিনিয়ত শক্তিশালী করতে থাকবে। আর এই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র তৈরিতে দেশটি অপর কোন দেশের অনুমতির জন্য অপেক্ষা করবে না।

গত সপ্তাহে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তেহরানের কড়া সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ইরান মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিরতা তৈরি করছে। ইরানকে দুর্বৃত্ত রাষ্ট্র আখ্যা দিয়ে ট্রাম্প বলেন, এই দেশের শীর্ষনেতা ওই অঞ্চলে সহিংসতা, রক্তপাত ও বিশৃঙ্খলা উস্কে দিচ্ছেন।

এর আগে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ওয়াশিংটন। বুধবার ট্রাম্প তার জাতিসংঘে ভাষণে বলেন, ইরান বিষয়ে আমি একটি সিদ্ধান্তে পৌছেছি। তবে তেহরান বিষয়ে তিনি ঠিক কোন্ ধরনের পদক্ষেপ নিতে চান তা খোলাসা করেননি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: