২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জালিয়াতির অভিযোগে ভার্সিটি ছাত্রসহ দুইজন আটক


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে জালিয়াতির অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রসহ দু’জনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক আমজাদ আলী জানান, পরীক্ষার আগের রাতে জালিয়াত চক্রের সদস্য সন্দেহে আরও তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

ঢাবি কর্তৃপক্ষ জানান, শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও বাইরের ৭০টি কেন্দ্রে ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হয়। কলা অনুষদের অধীন এই ইউনিটের ২ হাজার ৩৬৩ আসনের বিপরীতে এবার আবেদনকারী ছিলেন ৩২ হাজার জালিয়াতির অভিযোগে ৭৪৯। পরীক্ষা চলাকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র শাহজাহান আলী ওরফে রেজাকে এক ভর্তিচ্ছুর হয়ে পরীক্ষা দেয়ার সময় আটক করেন প্রক্টরিয়াল টিমের সদস্যরা। আর যার হয়ে তিনি ‘প্রক্সি’ দিচ্ছিলেন, সেই তানসেন মিয়াকেও পরে সাংবাদিকদের সহায়তায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে আটক করা হয়। শাহজাহান মাস্টার দা সূর্যসেন হলের ১৭১ নম্বর কক্ষের আবাসিক ছাত্র। আর ভর্তিচ্ছু তানসেন নরসিংদীর শিবপুর থানার সাদেক মিয়ার ছেলে। চলতি বছর ঢাকা কলেজের মানবিক বিভাগ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেছেন তিনি।

প্রক্টর আমজাদ আলী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা পরীক্ষা শুরুর পরপরই ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ কেন্দ্রের ৬০৫৪ নম্বর কক্ষে যান। সেখানে তানসেন নাম নিয়ে পরীক্ষায় বসা শাহজাহানের সঙ্গে প্রবেশপত্রের ছবি মিলিয়ে দেখেন তারা। ছবি আর চেহারার ভিন্নতা স্পষ্ট হলেও সম্পূর্ণ নিশ্চিত হওয়ার জন্য আমরা তাকে পরীক্ষা দিতে দিই। কিন্তু পরীক্ষা শেষ হওয়ার ১০ মিনিট আগেই সে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। তখন আমরা তাকে ধরে ফেলি। শাহজাহানকে প্রক্টরের কক্ষে আনার পর উপস্থিত সাংবাদিকরা তার মাধ্যমে তানসেনের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। তানসেন ফোন ধরলে তাকে অপরাজেয় বাংলার কাছে আসতে বলা হয়। তানসেন ও তার সঙ্গে থাকা বড়ভাই কাউসার মিয়া বিষয়টি আঁচ করতে পেরে দৌড় দেয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিমের দুই সদস্য পরে সাংবাদিকদের সহায়তায় তাদের ধরে ফেলেন। প্রক্টর আমজাদ আলী জানান, ওই সময় আজিমপুরের এক মেসে নাদিম নামে নরসিংদীর একজন ছিলেন যিনি তানসেন ও শাহজাহানের মধ্যস্থতাকারী। কিন্তু তাকে ধরা যায়নি। জিজ্ঞাসাবাদে তানসেন বলেছে, সাড়ে তিন লাখ টাকার চুক্তিতে শাহজাহান তার হয়ে প্রক্সি দিতে রাজি হয় বলেন প্রক্টর। এদিকে প্রক্টর অফিসে বসেই শাহজাহান দাবি করেন, তিনি ক্যান্সারে আক্রান্ত। চিকিৎসার প্রয়োজনে টাকার জন্য তিনি এ কাজ করেছেন। শাহজাহানের সহপাঠীরা জানান, তার ওই ধরনের কোন অসুস্থতার কথা তাদের জানা নেই। সূর্যসেন হলে খেলাধুলার জন্য তার সুনাম রয়েছে।

প্রক্টর আমজাদ জানান, এই জালিয়াতির সঙ্গে তানসেনের বড় ভাই কাউসার মিয়ার সম্পৃক্ততার প্রমাণ না পাওয়ায় তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। বাকি দুইজনকে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে পাবলিক পরীক্ষা আইনে মামলা করা হয়েছে। ঢাবি কর্তৃপক্ষ জানান, জালিয়াতি ঠেকাতে আগের বছরের মতো এবারও পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোন বা টেলিযোগাযোগ করা যায় এমন যে কোন ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস বা যন্ত্র সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পাশাপাশি পরীক্ষার সময় কেন্দ্রের বাইরে থাকছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এদিকে শুক্রবার সকালে কলাভবন কেন্দ্র পরিদর্শনে এসে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান বলেন, পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে যে কেন্দ্রগুলো আছে সেগুলো আমি পরিদর্শন করেছি। ভিসি জানান, গত রাতে সন্দেহভাজন হিসেবে তিনজনকে আটক করেছে আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ভর্তির ক্ষেত্রে সমন্বিত গুচ্ছ পরীক্ষার যে প্রস্তাব দিয়েছে, তা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন করবে কিনা জানতে চাইলে উপাচার্য জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার পদ্ধতি এতটাই সুগঠিত, এতই বিশ্বস্ত, এতই প্রশংসিত যে আমরা আপাতত পরিবর্তন চাচ্ছি না। তবে কোন কিছু যদি পরিবর্তন করতে হয় সেটা গভীর বিশ্লেষণ ও আলাপ আলোচনার মাধ্যমে করা হবে।

ঢাবি ‘চ’ ইউনিটের অঙ্কন পরীক্ষা আজ

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের অধীনে প্রথম বর্ষ বিএফএ সম্মান শ্রেণীতে ভর্তি পরীক্ষা (অঙ্কন) শনিবার সকাল ১০টা থেকে ১১:৩০টা পর্যন্ত চারুকলা অনুষদে অনুষ্ঠিত হবে। গত ১৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১,৫৫২জন অঙ্কন পরীক্ষায় অংশ নেবে। চ-ইউনিটে মোট আসন সংখ্যা রয়েছে ১৩৫টি। ভর্তি পরীক্ষার বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ধফসরংংরড়হ.বরং.ফঁ.ধপ.নফ ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া যাবে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: