২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

স্বেচ্ছাশ্রমে পটিয়ার ঠেগঁরপুনি রাস্তা সংস্কার


স্বেচ্ছাশ্রমে পটিয়ার ঠেগঁরপুনি রাস্তা সংস্কার

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া ॥ স্বেচ্ছাশ্রমে পটিয়া উপজেলার ভাটিখাইন ইউনিয়নের ঠেগঁরপুনি রাস্তাটির কিছু অংশ অবশেষে সংস্কার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ভাটিখাইন ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে ও এলাকার ১৫-২০জন তরুণ যুবকের উদ্যোগে গুরুরত্বপূর্ণ এ রাস্তাটি সংস্কার করেন। দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাটির কিছু অংশ সংস্কার না করায় মানুষকে ভোগান্তিতে পড়তে হয়। শুধু তা নয় ওই রাস্তা দিয়ে সিএনজি টেক্সী থেকে শুরু করে রিক্সা চলাচল পর্যন্ত করতে পারে না। উপজেলা প্রশাসনকে জানানোর পর কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় গ্রামবাসী স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তাটি সংস্কার শুরু করেন।

সরেজমিন ঘুরে জানা গেছে, উপজেলার ভাটিখাইন ইউনিয়নের গুরুত্বপূর্ণ এ রাস্তাটির মাঝামাঝি উপজেলা প্রশাসন ও ভাটিখাইন ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে ৯ লাখ টাকায় ব্রীক সলিং কাজ করা হয়। কিন্তু রাস্তাটির শেষ সীমানায় ১৫৫ ফুট কাজ না করায় সাম্প্রতিক সময়ের বর্ষায় বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়ে হাটু পরিমান পানি জমে থাকে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, তড়িৎ চৌধুরী, রনজিত চৌধুরী, বাবুন বড়–য়া, শোভন বড়–য়া, মনোজ বড়–য়া, সুমন বড়–য়া, সোহেল বড়–য়া, রবি বড়–য়া । খালি জমি থেকে বালু মাটি বস্তা ভর্তি করে চলাচল অযোগ্য ঠেঁগরপুনি রাস্তায় দিলে এলাকার মানুষ পুনরায় স্বাভাবিকভাবে চলাচল করতে থাকে।

এ ব্যাপারে ভাটিখাইন ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার নজরুল ইসলাম বলেন, গুরুত্বপূর্ণ এ রাস্তাটি সংস্কারের জন্য দীর্ঘদিন ইউনিয়ন পরিষদ ও এলাকার লোকজন দাবি জানালেও রাস্তাটির ১৫৫ ফুট সংস্কার হয়নি। যার কারণে গাড়ি চলাচল করতে পারে না। প্রতি শুক্রবার দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের লোকজন ঠেঁগরপুনি বিহারে যান। অবিলম্বে রাস্তাটি ব্রীক সলিং দ্বারা সংস্কার করে পুনরায় চলাচল উপযোগী করার দাবি জানান।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: