১৯ জানুয়ারী ২০১৮,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সাড়ে ৩৫ ঘণ্টা পর পৌলিতে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক


নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল, ২১ আগস্ট ॥ ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণ- পশ্চিমাঞ্চলের ট্রেন যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়েছে। প্রায় সাড়ে ৩৫ ঘণ্টা পর সোমবার বিকেল পাঁচটা ২০ মিনিটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। এর আগে বিকেল সাড়ে চারটার সময় পরীক্ষামূলকভাবে একটি ট্রেন চালানো হয়। টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলাংজানী নদীর ওপর পৌলি রেল সেতুর এ্যাপ্রোচের মাটি ধসে যাওয়ায় ঢাকার সঙ্গে উত্তরাঞ্চল ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া ভারতে যাতায়াতের একমাত্র মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটিও বন্ধ থাকে। রবিবার ভোর ছয়টার সময় সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেন পার হওয়ার সময় সেতুর এ্যাপ্রোচের মাটি ধসে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী রমজান আলী বলেন, নদীতে প্রবল স্রোতের কারণে মাটি ধসে ২০ ফুটের মতো গর্তের সৃষ্টি হয়। ফলে বন্ধ করে দেয়া হয় ট্রেন চলাচল। দুইদিন ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করে রেল বিভাগের একদল দক্ষ ও অভিজ্ঞ প্রকৌশলী মেরামত কাজে অংশ নিয়েছেন। তারা ধসে যাওয়াসহ প্রায় ৫০ মিটার অংশে জয়েস্ট বসিয়ে রেললাইন মেরামত করে। সোমবার বিকেল চারটা ৫ মিনিটের সময় পরীক্ষামূলকভাবে একটি ট্রেন পৌলি রেল সেতুর দুই পাশে চালানো হয়।

রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের (পাকশী) বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক অসীম কুমার তালুকদার বলেন, সাড়ে ৩৫ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়েছে। বিকেল ৫টা ২০ মিনিটের সময় রংপুর এক্সপ্রেস ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। এর আধা ঘণ্টা পর দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেন ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়। রেল সেতুর দক্ষিণ পাশে প্রায় ২০ বর্গফুট এলাকার মাটি ধসে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়। প্রায় ৫০ বর্গফুট এলাকাজুড়ে জয়েস্ট বসিয়ে অস্থায়ীভাবে মেরামত করা হয়েছে। এ সেতুর ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পার হওয়ার সময় ট্রেন ধীরগতিতে চলবে। বন্যা শেষ হলে রেল সেতুর এই ক্ষতিগ্রস্ত স্থানটি স্থায়ীভাবে মেরামত করা হবে।

রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী রমজান আলী, পাকশী বিভাগীয় প্রকৌশলী-২ আছাদুল হক, পশ্চিমাঞ্চলের জেনারেল ম্যানেজার খায়রুল আলম, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী ব্রিজ সুবক্তগীন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।