১৮ জানুয়ারী ২০১৮,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভিসা জটিলতা কেটে গেছে, এখন সব হজযাত্রীকে পাঠানোর চ্যালেঞ্জ


স্টাফ রিপোর্টার ॥ হজ-ফ্লাইট শুরু থেকে ভিসা নিয়ে নানা জটিলতা দেখা দিলেও শেষ পর্যন্ত তা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই সম্পন্ন করা সম্ভব হয়েছে। বুধবার পর্যন্ত হজব্রত পালনের জন্য মোট ১ লাখ ২৩ হাজার ২১১ জন বাংলাদেশী নাগরিকের হজ ভিসা দিয়েছে সৌদি সরকার। বাকি ৪ হাজার ভিসা আজ বৃহস্পতিবার ইস্যু করা হবে। এদের মধ্যে সবাই ভিসার জন্য আবেদন নাও করতে পারেন। রিপ্লেসমেন্ট বাণিজ্য করার সুযোগ না পাওয়ায় তারা বিপাকে পড়তে পারেন। বুধবার পর্যন্ত ঢাকা থেকে মোট ৭০ হাজার হজযাত্রী জেদ্দা গেছেন বলে জানা যায়। আগামী এগারো দিনে বাকি ৫৭ হাজার হজযাত্রী হজে যেতে পারবেন বলে নিশ্চিত করেছেন সাবেক হজ পরিচালক বজলুল হক বিশ্বাস।

জানা গেছে, এবার মোট ভিসাপ্রাপ্তদের মধ্যে সরকারী ব্যবস্থাপনার ৪ হাজার ১১৬ জন, বেসরকারী ব্যবস্থাপনার ১ লাখ ১৭ হাজার ৮২৫ জন ও সরকারী বিভিন্ন দল, বেসরকারী ব্যবস্থাপনার মোনাজ্জেম ও হজ এজেন্সিস এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) কার্যনির্বাহী কমিটির কর্মকর্তা ও সদস্য রয়েছেন ১ হাজার ১১৮ জন।

এদিকে সবার ভিসা হবার মতো বড় দুশ্চিন্তার সমাধান হলেও সব হজযাত্রী জেদ্দায় না পৌঁছা পর্যন্ত কোন স্বস্তি নেই বলে জানিয়েছেন হজ অফিসের পরিচালক মোঃ সাইফুল ইসলাম। তিনি জানিয়েছেন, ভিসা নিয়ে কোন সংকট দেখা না গেলেও কৃত্রিম সংকট তৈরির নানা চক্রান্ত ছিল। মিডিয়ায় এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনাও হয়েছে। কিন্তুু আজ থেকে তো আর এ অপবাদ বা সমালোচনা ক্উে করতে পারবে না।

তিনি বলেন, এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে, যারা ভিসা পেয়েছেন-তাদের সবাইকে জেদ্দায় পাঠানো এবং আগামী ২৮ ফ্লাইট অর্থাৎ আর মাত্র এগারো দিনের মধ্যেই তাদের সসম্মানে পাঠানোর চেষ্টা চলছে।

শেষ পর্যন্ত ভিসাপ্রাপ্তদের মধ্যে সবাই সৌদি আরবে যেতে পারবে কিনা এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখনও যে সময় রয়েছে- তাতে বিমানের অতিরিক্ত ফ্লাইট ও ফ্লাইটের হিসেবে স্বস্তিতে ও শান্তিতে হজ পালন করতে যেতে পারবেন।

চলতি বছর সরকারী ও বেসরকারী ব্যবস্থাপনায় মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজযাত্রীর কোটা রয়েছে। বিগত বছর নির্ধারিত কোটার শতকরা ৯৭ ভাগের কিছু সংখ্যক বেশি হজযাত্রী হজে গেছেন। এবারও তেমন সংখ্যক হজযাত্রী হজে যেতে পারবেন বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে আশকোনা হজ অফিস কর্তৃপক্ষ।

এদিকে হজযাত্রী পাঠানোর জন্য বিমানের নেয়া কয়েকটি রুটে ফ্লাইট বাতিল সিদ্ধান্তের পর বুধবার রাতের ফ্লাইট রিসিডিউল করা হয়েছে। ওই ফ্লাইট আজ বৃহস্পতিবার সকালে কুয়েতের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যাবে। ওই ফ্লাইটের যে সব যাত্রী রাতে বিমানবন্দর পৌঁছে গেছে তাদের উত্তরায় বিমানের নিজস্ব তালিকাভুক্ত বিভিন্ন হোটেলে পাঠানো হয়েছে। ওই ফ্লাইটের যাত্রী মামুন জানান, বুধবার সন্ধ্যায় কুয়েতে রওনা হওয়ার সিডিউল থাকলেও হঠাৎ বিমান জানিয়েছে সেটা পরিবর্তন করা হয়েছ্।ে বাধ্য হয়েই এখন আমাদের উত্তরার নর্দান হোটেলে পাঠিয়েছে বিমান।

বিমানের এয়ারপোর্ট সার্ভিস জেনারেল ম্যানেজার নুরুল ইসলাম হাওলাদার জানিয়েছেন, আজ সকালে ২২০ যাত্রী নিয়ে একটি বোয়িং ৭৭৭ -৩০০ ইআর ঢাকা ছাড়বে। এই ফ্লাইট রি রুট হিসেবে কুয়েত থেকে জেদ্দা হয়ে ঢাকায় ফিরবে।

তিনি জানান, হজ ফ্লাইট নিরবচ্ছিন্ন করার জন্য আগামী ২৪ আগস্ট পর্যন্ত ঢাকা দোহা রুটের ফ্লাইট বাতিল করা হলেও সেটা আবার রিভাইভ করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার ওই ফ্লাইট দোহার উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যাবে।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: