মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

চলচ্চিত্র ঐক্যজোটের প্রতিবাদ সমাবেশ

প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৭, ০৪:২৮ পি. এম.
চলচ্চিত্র ঐক্যজোটের প্রতিবাদ সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যৌথ প্রযোজনার নামে যৌথ প্রতারণার অভিযোগে প্রতিবাদ সমাবেশ করে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৪ দলের সংগঠন ‘চলচ্চিত্র ঐক্যজোট’। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া থেকে ‘বস টু’ ও ‘নবাব’ ছবি দুটি যেন এবার ঈদে মুক্তি দেয়া না হয় এ বিষয়ে বিএফডিসির প্রধান ফটকে ‍আজ রবিবার দুপুরে তারা অবস্থান নেয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, মহাসচিব বদিউল আলম খোকন, মনতাজুর রহমান আকবর, সোহানুর রহমান সোহান, মোহাম্মদ হোসেন জেমি, শাহীন সুমন, বজলুর রশীদ, খোরশেদ আলম খসরু ও শামসুল আলম প্রমুখ। সমাবেশে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ফারুক, অঞ্জনা, রুবেল, মিশা সওদাগর, রিয়াজ, পপি, জায়েদ খান, সাইমন, ইমন, পরীমনি, বাপ্পী, শিমুল খান, আরজু, শিপন মিত্র, অমৃতা, নিঝুম, রুবিনা, মৌমিতা, জেসমিনসহ আরো অনেকে।

এ সময় শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া এফডিসিতে কোনো অনিয়ম চলবে না। এটা আমরা হতে দিব না।

জায়েদ খান বলেন, যৌথ প্রযোজনার নামে যৌথ প্রতারণার ছবি বন্ধ করতে হবে। শিল্পী সমিতির সহ-সভাপতি রিয়াজ বলেন, যৌথ প্রযোজনার নামে যারা প্রতারণা করছে তারা চলচ্চিত্রের রাজাকার। তাদের ছবি এদেশে চলবে না।

চলচ্চিত্র প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু বলেন, আজ শিল্পী, পরিচালক ও প্রযোজক এক হয়ে মাঠে নেমেছি। আমাদের উদ্দেশ্য একটাই, বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকে বাঁচাতে হবে। কারণ চার থেকে পাঁচ লাখ মানুষ চলচ্চিত্রের সঙ্গে জড়িত। তাদের বাঁচাতে হলে এই অনিয়মের যৌথ প্রযোজনা বন্ধ করতে হবে। এই অনিয়ম কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

এরপর এফডিসির গেট থেকে মিছিল নিয়ে ইস্কাটনস্থ সেন্সর বোর্ডের সামনে অবস্থান নেয়। সেখান থেকেই একটি দল তথ্য মন্ত্রাণালয় যায়। পরিচালক মনতাজুর রহমান আকবর জানান, তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে এখন এ বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা চলছে। আশা করছি, সরকার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখবে।

প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৭, ০৪:২৮ পি. এম.

১৮/০৬/২০১৭ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: