মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

আইরিশদের উড়িয়ে প্রথম জয় পেল বাংলাদেশ

প্রকাশিত : ২০ মে ২০১৭
  • ম্যাচসেরা মুস্তাফিজ

জাহিদুল আলম জয় ॥ ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে প্রথম জয়ের দেখা পেয়েছে বাংলাদেশ। শুক্রবার রাতে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডকে ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে লাল-সবুজের দেশ। আয়ারল্যান্ডের ডাবলিনের মেলহাইড স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানের আগুন ঝরানো বোলিংয়ে মাত্র ১৮১ রানে অলআউট হয় আইরিশরা। জবাবে দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকারের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ও ১৩৭ বল হাতে রেখে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ১৮২ রান করে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল।

দারুণ এই জয়ে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে সাত নম্বর স্থান পাকাপোক্ত হয়েছে বাংলাদেশের। আগে থেকেই র‌্যাঙ্কিংয়ে সাতে ছিল টাইগাররা। এই জয়ে সাত নম্বর স্থান নড়বড়ে হবে না। দুই ম্যাচে টানা দুই জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে সিরিজে শীর্ষে অবস্থান নিউজিল্যান্ডের। তিন ম্যাচে ৬ পয়েন্ট বাংলাদেশের ভা-ারে। পরিত্যক্ত প্রথম ম্যাচ থেকে ২ পয়েন্ট নিয়ে সবার নিচে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড। সিরিজ শেষে বেশি পয়েন্ট পাওয়া দল জিতবে ট্রফি।

১৮২ রানের জবাবে দুর্দান্ত সূচনা করেন তামিম ও সৌম্য। উদ্বোধনী জুটিতে এ দু’জন সংগ্রহ করেন ৯৫ রান। এর পর আউট হন তামিম। দলীয় ৯৫ রানে ব্যক্তিগত ৪৭ রান করে কেভিন ও’ব্রেইনের বলে নেইল ও’ব্রেইনকে ক্যাচ দেন টাইগার ওপেনার। ৫৪ বলে ছয়টি চারে এই রান করেন চট্টলার যুবক। সতীর্থ আউট হলেও নিজের কাজটা ভালভাবেই পালন করেন সৌম্য। তামিম আউট হওয়ার পর সাব্বির রহমানকে নিয়ে আরও ৭৬ রান যোগ করেন সৌম্য। ৩৪ বলে ৩৫ রান করে দলীয় ১৭১ রানে সাব্বির আউট হলেও দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন সৌম্য। শেষ পর্যন্ত ৬৮ বলে ৮৭ রান করে অপরাজিত থাকেন বাঁহাতি এই ওপেনার। অপর প্রান্তে মুশফিক অপরাজিত থাকেন ৩ রানে। সব মিলিয়ে মাত্র ২৭.১ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয় নিশ্চিত করে বাংলাদেশ।

এর আগে বোলিং সহায়ক কন্ডিশনে টস জিতে ফিল্ডিং বেছে নেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি। সিরিজে প্রথম দুই ম্যাচে টসে হেরে ব্যাটিং করতে হয়েছিল টাইগারদের। আইরিশদের বিরুদ্ধে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে এসে কয়েন-ভাগ্যের হাসি, সতীর্থদের হাতে বল তুলে দেন অধিনায়ক। আর বল হাতে আগুন ঝরান কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান (৪/২৩)। অভিষেকে ঔজ্জ্বল্য ছড়িয়েছেন স্পিনার সানজামুল ইসলাম (২/২২)। দু’জনকে দারুণ সঙ্গ দিয়েছেন সাকিব আল হাসান (১/৩৮), মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত (১/২১) ও অধিনায়ক মাশারাফি (২/১৮) নিজে। টাইগারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে দিশেহারা আইরিশরা ৪৬.৩ ওভারে অলআউট হয় ১৮১ রানে। ফিল্ডিং বেছে নেয়ার পর দুর্দান্ত শুরু করে বাংলাদেশ। রুবেল হোসেনের করা প্রথম ওভার মেডেনের পর দ্বিতীয় ওভারেও মেডেন উইকেট নেন মুস্তাফিজ। তার অফ স্টাম্পের বাইরের বলটি খোঁচা মেরে সাব্বির রহমানের হাতে ধরা পড়েন পল স্টার্লিং। শূন্য হাতে (০) স্টার্লিংয়ের বিদায়ের পর একটু হাত খোলার চেষ্টা করেন আইরিশ অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড (২২)। তাকে কট এ্যান্ড বোল্ড করে শুরুটা করেন তরুণ মোসাদ্দেক। আইরিশ দুর্গে তৃতীয় আঘাত হানেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব। তার ঘূর্ণিবল বুঝতে না পেরে বোল্ড হয়ে যান ১২ রান করা এ্যান্ডি ব্যালব্রেইন। চতুর্থ উইকেটে এড জয়েস এবং নেইল ও’ব্রেইনের ৫৫ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে স্বাগতিকরা। কিন্তু কাটার মাস্টার আছেন না? ‘দ্য ফিজের’ বলে তামিম ইকবালের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন নেইল ও’ব্রেইন (৩০)।

এর পর মঞ্চে আবির্ভাব অভিষিক্ত সানজামুল ইসলামের। নিজের প্রথম ওভারেই প্রথম আন্তর্জাতিক উইকেটটি তুলে নেন তিনি। দলীয় ২৯ ওভারের শেষ বলে ওপেনার এড জয়েসকে (৪৬) তামিম ইকবালের ক্যাচে পরিণত করেন। আইরিশদের তখন ঘোর বিপদ। জোড়া আঘাতে সেই বিপদ আরও বাড়িয়ে দেন মুস্তাফিজ। আগেরবার সাব্বির রহমান কেভিন ও’ ব্রায়ানের (১০) ক্যাচ ছাড়লেও মোসাদ্দেক এবার আর সেই ভুল করেননি। মুস্তাফিজের তৃতীয় শিকারে পরিণত হন তিনি। এখানেই শেষ নয়, দ্য ফিজের শর্ট বলে আয়ারল্যান্ডের শেষ স্বীকৃত ব্যাটসম্যান গ্যারি উইলসন (৬) উইকেটের পেছনে মুশফিকুর রহিমের গ্লাভসবন্দী হন। যদিও টিভি রিপ্লেতে দেখা গেছে বলটি আসলে উইলসনের পায়ে লেগেছিল। স্বাগতিকদের অষ্টম উইকেটের পতন ঘটান অভিষিক্ত সানজামুল। ব্যারি ম্যাককার্থিকে (১২) এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক উইকেট শিকার করেন ২৭ বছর বয়সী বাঁহাতি এ অফস্পিনার।

৯ রানের ব্যবধানে মাশরাফির বলে মুশফিকুর রহিমের গ্লাভসে ধরা পড়েন জর্জ ডকরেল (২৫)। পিটার চেজকে (০) তুলে নিয়ে আইরিশদের কফিনে শেষ পেরেকটিও ঠুকে দেন স্বয়ং টাইগার অধিনায়ক।

স্কোর ॥

আয়ারল্যান্ড ॥ ৪৬.৩ ওভারে ১৮১ (জয়েস ৪৬, নেইল ও’ব্রেইন ৩০, ডকরেল ২৫, পোর্টারফিল্ড ২২; মোস্তাফিজুর ৪/২৩, মাশরাফি ২/১৮, সানজামুল ২/২২, মোসাদ্দেক ১/২১, সাকিব ১/৩৮, মাহমুদউল্লাহ ০/১৩, রুবেল ০/৪১)।

বাংলাদেশ ॥ ২৭.১ ওভারে ১৮২/২ (তামিম ৪৭, সৌম্য ৮৭*, সাব্বির ৩৫, মুশফিকুর ৩*; কেভিন ও’ ব্রায়ান ১/২২, ম্যাকার্থি ১/৪২)।

ফল ॥ বাংলাদেশ ৮ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরা ॥ মোস্তাফিজুর রহমান (বাংলাদেশ)।

প্রকাশিত : ২০ মে ২০১৭

২০/০৫/২০১৭ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: