২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

স্বাধীনতা নস্যাতে জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস ছড়াচ্ছে বিপথগামী কিছু যুবক ॥ সিনহা


নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁশখালী ॥ প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, দেশের স্বাধীনতা নস্যাত করতে বিপথগামী কিছু যুবক জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস ছড়াচ্ছে। স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি সাধারণ জনগণকে জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করা প্রত্যেক নাগরিকের দায়িত্ব ও কর্তব্য। ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা পালন করছে বিচার বিভাগ। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা সংগ্রামপরবর্তী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল একটি কল্যাণকর রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা। তার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হলে প্রত্যেক নাগরিককে সুনাগরিকের দায়িত্ব পালন করতে হবে। তাহলেই সম্ভব বাংলাদেশকে একটি কল্যাণকর রাষ্ট্রে পরিণত করা।

শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রামের বাঁশখালীর নির্মাণাধীন আদালত ভবন পরিদর্শনকালে বাঁশখালী আইনজীবী সমিতি আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি কথাগুলো বলেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন, বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আপিল বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার অরুণাভ চক্রবর্ত্তী, চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ হেলাল আহমেদ এবং চট্টগ্রামের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুন্সি মশিউর রহমান।

আইনজীবী সমিতির সংবর্ধনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সিনিয়র আইনজীবী যথীন্দ্রলাল সুশীল। বাঁশখালীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাজ্জাদ হোসেনের সঞ্চালনায় এতে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (চট্টগ্রাম দক্ষিণ) কেএম এমরান হোসাইন ভূঁইয়া, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোঃ চাহেল তস্তরি, বাঁশখালী থানা অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন এবং জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগদানের পূর্বে দুপুরে প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা বাঁশখালী কোকদন্ডী ঋষিধামে পুনঃনির্মিত শ্রীগুরু মন্দিরের উদ্বোধন করেন। এছাড়া ঐ মন্দিরের প্রতিষ্ঠাতা স্বামী অদৈতানন্দ পুরী মহারাজের ১১৬তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত ধর্মীয় সভায়ও যোগদান করেন প্রধান বিচারপতি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: