১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পটিয়ায় প্রবল বর্ষণে বোরো ও রবি শস্যের ক্ষতি


পটিয়ায় প্রবল বর্ষণে বোরো ও রবি শস্যের ক্ষতি

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া ॥ প্রবল বর্ষণে পটিয়া উপজেলার ১৭ ইউনিয়ন ও পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে শুরু হওয়া বৃষ্টি একটানা শুক্রবার ভোরে পর্যন্ত হওয়ায় নিচু এলাকা ডুবে যায়। পাশাপাশি পাহাড়ি ঢলের পানি দ্রত নিস্কাশন হতে না পেরে বোরো মওসুমের পাকা ধানসহ রবি শস্য ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

পৌর সদরের সুচকদন্ডী, রামকৃষ্ণ মিশন রোড সড়ক, সাংবাদিক জালাল উদ্দিন সড়ক, হাসপাতাল গেইট এলাকা, ডাকবাংলা, কামাল বাজার এলাকাসহ বেশ কয়েকটি সড়কে দুপুর পর্যন্ত হাটু পরিমাণ বৃষ্টির পানি জমে রয়েছে। যার কারণে শিক্ষার্থীসহ এলাকার শত-শত নারী-পুরুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

তাছাড়া উপজেলার হাইদগাঁও, কচুয়াই, কেলিশহর, ভাটিখাইন, জঙ্গলখাইন, কুসুমপুরা, জিরি, হাবিলাসদ্বীপ, কোলাগাঁও এলাকায় বৃষ্টির পানি জমে রয়েছে। জলবদ্ধতা নিরসন করতে পটিয়া পৌরসভা ও বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে সম্প্রতি পৌর এলাকায় ১২ কোটি টাকার একটি প্রকল্পের কাজ শুরু হয়।

এদিকে, কৃষকরা জানিয়েছেন, বোরো মওসুকের পাকা ধান কাটার আগেই ভারী বৃষ্টির কারণে তাদের ক্ষতি হয়েছে। উপজেলার কুসুমপুরা ইউনিয়নের হরিণখাইন গ্রামের বারী এগ্রো ফার্মের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বজলুল বারী চৌধুরী বলেন, বোরো মওসুমে তিনি ব্রি-৬৯ যে ধান চাষাবাদ করেছেন তাতে বাম্পার ফলন হয়েছে।

কিন্তু ভারী বৃষ্টির কারণে বর্তমানে পাকা ধান পড়ে গেছে। পটিয়া পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদ বলেন, তিনি পৌরসভার মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর জলাবদ্ধতা নিরসন করতে প্রতি বছরেই ড্রেনেজের কাজ করছেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: